কাশ্মীরে জঙ্গি দমনে বড় সাফল্য, নিরাপত্তারক্ষীদের গুলিতে নিকেশ ৩ জেহাদি, শহিদ এক পুলিশকর্মীও

আপডেট: মে ২৫, ২০২২, ৪:৪০ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক :


শ্রীনগরে পুলিশকর্মী হত্যার বদলা। বারামুলায় ৩ সন্ত্রাসবাদীকে খতম করল নিরাপত্তারক্ষী বাহিনী। বুধবার বারামুলার ক্রেরি এলাকায় সেনা-জঙ্গি গুলির লড়াইয়ে নিকেশ হয়েছে তিন পাকিস্তানি জঙ্গি। ওই ঘটনায় এক পুলিশকর্মীও শহিদ হয়েছেন বলে খবর।

বারামুলের ক্রেরি এলাকায় জঙ্গিরা লুকিয়ে আছে। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে এদিন সকালে ওই এলাকায় বিশেষ অভিযান চালায় কাশ্মীর পুলিশ এবং ভারতীয় সেনার যৌথ বাহিনী। ওই এলাকায় শুরু হয় চিরুনি তল্লাশি।

অভিযান চলাকালীন ধরা পড়ার ভয়ে জঙ্গিরাই অতর্কিতে গুলি চালানো শুরু করে জঙ্গিরা। যোগ্য জবাব দেয় সেনাও। দীর্ঘক্ষণ গুলির লড়াইয়ে নিকেশ হয়েছে তিন জঙ্গি। নিকেশ হওয়া ওই তিন জঙ্গিই পাকিস্তানি। সীমান্ত পেরিয়ে এদেশে এসে বড়সড় নাশকতার ছক কষছিল তারা। এই অভিযানে কাশ্মীর জোন পুলিশের এক কর্মীও শহিদ হয়েছেন বলে খবর।

পুলিশ সূত্রের খবর, নিকেশ জঙ্গিদের কাছ থেকে প্রচুর অস্ত্রশস্ত্র উদ্ধার হয়েছে। ওই এলাকায় আরও বেশ কয়েকজন জেহাদির লুকিয়ে থাকার আশঙ্কা রয়েছে। তাদের খোঁজে এখনও তল্লাশি চালাচ্ছে সেনা এবং কাশ্মীর পুলিশের যৌথ বাহিনী। গোটা এলাকা ঘিরে রাখা হয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দাদেরও সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে। প্রয়োজনে বাড়ি বাড়ি গিয়ে তল্লাশি চালানো হবে।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবারই শ্রীনগরে নিজের বাড়ির সামনেই এক পুলিশকর্মীকে গুলি করে খুন করে জেহাদিরা। সইফুল্লাহ কাদরি নামের ওই পুলিশকর্মীর ৭ বছরের মেয়েও জেহাদিদের গুলিতে আহত হয়। পুলিশের ধারণা ছিল বারামুলায় লুকিয়ে থাকা ‘হাইব্রিড’ জঙ্গিরা এই কাÐ ঘটিয়েছে। সেকারণেই ওই এলাকায় এদিন সকাল থেকে তল্লাশি শুরু হয়। আর তাতেই এল সাফল্য।
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ