কিমের বোনের জাপানের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্কে আপত্তি নেই

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২৪, ১:১০ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক :উত্তর কোরিয়ার একনায়ক শাসক কিম জং উনের বোন কিম ইয়ো জং জানালেন জাপানের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক স্থাপনে বাধা নেই তাঁদের। পাশাপাশি জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদা পিয়ং ইয়ং সফরে আসতে পারেন বলেও ইঙ্গিতও দিয়েছেন তিনি। কিম ইয়ো জঙের এই মন্তব্যকে গুরুত্ব সহকারে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে জাপান।

উল্লেখ্য, উত্তর কোরিয়া ও জাপানের মধ্যে কোনো কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই। তবে সম্প্রতি দেশটির প্রধানমন্ত্রী কিশিদাকে বলতে শোনা গেছে, উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে আলোচনার সম্ভাব্য পরিস্থিতি রয়েছে। এই অবস্থায় উত্তর কোরিয়ার একনায়ক শাসকের বোনের এই মন্তব্যকে বেশ তাৎপর্যপূর্ণ বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

কিম ইয়ো জং বলেন, ‘জাপান যদি পারস্পর শ্রদ্ধা বজায় রেখে সম্মানজনক আচরণের মাধ্যমে সামগ্রিক উন্নয়নের লক্ষ্যে কোনো নতুন সরণি নির্মাণের রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত নিতে চায়, তাহলে আমি মনে করি তা দু’ দেশের জন্যই সম্ভাবনার নতুন রাস্তা খুলে দেবে।’

উত্তর কোরিয়ার সামরিক নীতির প্রশ্নে বরাবরই সমালোচক জাপান। পারমাণবিক অস্ত্র ও ব্যালিস্টিক মিসাইলের মতো অস্ত্রের পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে পিয়ং ইয়ং-এর সমালোচনা করেছে জাপান। কিন্তু কিম ইয়ো জঙের মন্তব্যের পরে সদর্থক প্রতিক্রিয়াই জানিয়েছে জাপান। জাপানের প্রধান ক্যাবিনেট সচিব ইয়োশিমাসা হায়াশি বলেন, ‘ভাইস ডিরেক্টর কিম যে বিবৃতি দিয়েছেন, আমরা সেদিকে নজর রাখছি।’

তবে এর বেশি কিছু তিনি বলেননি। কেবল জানিয়েছেন, জাপান প্রশাসন উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে বৈঠক করার চেষ্টা বহুদিন ধরেই করছে। সেই সঙ্গেই তিনি পরিষ্কার করে দিয়েছেন, জাপানের অসামরিক নাগরিকদের অপহরণ ইস্যু মিটে গিয়েছে বলে উত্তর কোরিয়া যে দাবি করা তা তাঁরা মানেন না।
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন অনলাইন