কুকুরের জন্য রক্ষা পেলো বিয়ে!

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০১৭, ১২:১০ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



বিয়ের সবকিছু ঠিকঠাক। শুধু গাঁটছড়া বাঁধা বাকি। এ সময় বাদ সাধল হবু কনের পোষা কুকুর। হবু বর বললেন, বিবাহিত জীবনে কুকুরের অনধিকার প্রবেশ তিনি মানবেন না। কিন্তু কনে গোঁ ধরে বসলেন, কারো জন্য সে তার শখের পোষা কুকুরকে বিসর্জন দিতে পারবে না। শেষমেশ বিয়েটাই ভেঙে গেল। গত বছরের সেপ্টেম্বরে এমনই একটি ঘটনা ঘটেছিল ভারতের বেঙ্গালুরুতে।
তবে এ বছর ইংল্যান্ডে ঘটেছে ঠিক উল্টো একটি ঘটনা। একটি ফ্রেঞ্চ বুল ডগের (এক জাতের কুকুর) জন্য এক জুটির বিয়ের অনুষ্ঠান পণ্ড হতে যেয়েও হয়নি।
উত্তর-পশ্চিম ইংল্যান্ডের ছোট শহর স্টকপোর্টে বাস করেন লরা ও জেমস রাসেল দম্পতি। চলতি সপ্তাহে তারা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। এই দম্পতির জর্জ নামের একটি পোষা কুকুর আছে।
তারা উভয়ে চেয়েছিলেন তাদের এই বিয়েতে জর্জ বিশেষভাবে যুক্ত থাকুক। এই পরিকল্পনা থেকেই তারা এই ভিডিওটি তৈরি করেছেন। ভিডিওটির শিরোনাম দেওয়া হয়েছে ‘ডগ সেভস ওয়েডিং ডে হোয়েন বেস্ট ম্যান ফরগট দেয়ার ওয়েডিং রিং’ অর্থাৎ ‘কুকুর বিয়ে বাঁচালো যখন প্রিয় বন্ধু বিয়ের রিং আনতে ভুলে গিয়েছিল।’
ভিডিওর শুরুতে দেখা যায় জেমস রাসেলকে স্থানীয় গীর্জার পাদ্রী লরাকে আংটি পরিয়ে দিতে বলছেন। জেমস রাসেল তার প্রিয় বন্ধু ক্রেইগ রোডসকে বিয়ের আংটি দিতে বলেন। ক্রেইগ রোডস জানায়, তিনি আংটি আনতে ভুলে গেছেন।
এরপর দেখা যায়, বিছানায় ঘুমিয়ে আছে জর্জ নামের কুকুরটি। তার পাশে বাজছে ফোনের রিংটন। ঘুম থেকে জেগে ফোনটি কানে ধরে মন দিয়ে কথা শোনে জর্জ। এরপর বাক্স থেকে আংটি নিয়ে দৌড়াতে থাকে। গীর্জায় ঢোকার আগে জর্জের মনে হয় তার গায়ের পোশাক বিয়ের অনুষ্ঠানের জন্য উপযুক্ত নয়। তখন সে আবার বাসায় ফিরে যায় এবং গোসল সেরে নতুন পোশাক পরে দৌড়ে অনেকটা পথ পাড়ি দিয়ে গীর্জায় পৌঁছায়। এভাবেই ভিডিওর মাধ্যমে দেখানো হয়েছে জর্জ, লরা ও জেমস রাসেলের বিয়ে ভেঙে যাওয়া রক্ষা করেছে। পুরো ভিডিওটি বিয়ের অনুষ্ঠানে বড় পর্দার মাধ্যমে আমন্ত্রিত অতিথিদের দেখানো হয়েছে। লরা তার ফেসবুক পেজে ভিডিওটি শেয়ার করেন। ভালোবাসা ও আবেগে মোড়ানো এই ভিডিওটি গত কয়েকদিনে ফেসবুকে আলোড়ন তুলেছে। তিন দিনের ব্যবধানে ৭ মিলিয়নের বেশি বার দেখা হয়েছে ভিডিওটি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ