কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তা পালনের লক্ষ্যে রাসিকের অ্যাডভোকেসি সভা

আপডেট: মার্চ ২১, ২০১৭, ১:২০ পূর্বাহ্ণ

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি


আগামী ১ থেকে ৬ এপ্রিল কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ ও ক্ষুদে ডাক্তার কর্তৃক শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা কার্যক্রম পালন করবে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন। গতকাল সোমবার সকালে এ উপলক্ষে নগরভবন সরিৎ দপ্তগুপ্ত সভা কক্ষে এ্যাডভোকেসি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের দায়িত্বপ্রাপ্ত মেয়র নিযাম উল আযীম।
সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত মেয়র বলেন, আজকের শিশুরা আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। তাঁদের সুস্থ ও সবলভাবে গড়ে তোলার দায়িত্ব আমাদের। শিশুদের রোগমুক্ত রাখতে তাঁদের স্বাস্থ্য সচেতনভাবে গড়ে তুলতে হবে। এজন্য অভিভাবকসহ শিক্ষকদের অগ্রণী ভূমিকা রাখতে হবে। তবে আমরা পাব সুস্থ সবল জাতি। যারা আগামীতে দেশকে এগিয়ে নিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলবে।
তিনি বলেন, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন দেশের অন্যান্য সিটি কর্পোরেশনের চেয়ে সকল দিকে এগিয়ে। ইপিআই বার বার প্রথম, সম্প্রতি বায়ুদূষণে সেরা নগরীর স্বীকৃতি অর্জন করেছে। আর এ সবকিছুই মহানগরবাসীর সচেতনতার ফলে সম্ভব হয়েছে। আমাদের এ সাফল্য ধরে রাখতে চাই। এজন্য চাই সকলের সহযোগিতা।
তিনি বলেন, একটি শিশুও যেন কৃমিনাশক ট্যাবলেট খাওয়া থেকে বাদ না পড়ে সেজন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে আরও বেশি দায়িত্বশীল হবার আহবান জানান তিনি। কৃমি ট্যাবলেট খাওয়ানোর বিষয়ে কোন কুসংস্কারে বিশ্বাসী না হয়ে তাঁদের সাহস দিয়ে এ বিষয়ে উদ্বুদ্ধ করতে হবে।
শিক্ষা, স্বাস্থ্য পরিবার, পরিকল্পনা এবং স্বাস্থ্য রক্ষণ ব্যবস্থা স্থায়ী কমিটির সভাপতি নাজমা খাতুনের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন, সহকারী পরিচালক (স্বাস্থ্য) ড. ইসমত আরা, ইসলামিক ফাউন্ডেশন এর উপ-পরিচালক একেএম মনিরুল ইসলাম, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ড. সাবরিনা আনাম, আঞ্চলিক তথ্য অফিসের সিনিয়র তথ্য অফিসার ফারুক মো. আব্দুল মুনিম।
সভায় স্বাগত বক্তব্য ও এ কার্যক্রম সম্পর্কে বিস্তারিত প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন, রাসিকের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. এফএএম আঞ্জুমান আরা বেগম। বক্তব্য রাখেন জামেয়া ইসলামিয়া শাহমখদুম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মুফতি মাওলানা শাহাদাত আলী, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা রাজশাহী অঞ্চলের বিদ্যালয় পরিদর্শক লুৎফর রহমান, তেরখাদিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক লিয়াকত আলী।
সভায় রাসিকের ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইকবাল হোসেন দিলদার, ১৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মনির হোসেন, ৩০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুস সামাদ, ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সোহরাব হোসেন শেখ, ১০নং সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর সুলতানা রাজিয়া, ৬নং সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর মমতাজ মহল লাইলীসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও বিভিন্ন সরকারী-বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, ১ থেকে ৬ এপ্রিল কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহে এবার প্রাথমিক পর্যায়ের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি মক্তবসহ উচ্চ বিদ্যালয় পর্যায়ের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এ কার্যক্রমের আওতায় নিয়ে আনার লক্ষ্য নিয়ে ৫ থেকে ১৬ বছর বয়সি বিদ্যালয়গামী ও একই বয়সি বিদ্যালয় বহির্ভূত, ঝরে পড়া, পথ শিশু শ্রমজীবি শিশু বেদে পরিবারের শিশুসহ সকল শিশুকে এ কার্যক্রমের আওতায় আনা হবে।
১-৬ এপ্রিল সপ্তাহব্যাপী ৫-১৬ বছর বয়সি বিদ্যালয়গামী সকল শিশুকে বিদ্যালয়ে ক্ষুদে ডাক্তারের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের ভরাপেটে একটি করে কৃমিনাশক ট্যাবলেট খাওয়ানো ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ