কেমন আছেন মাশরাফি?

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০১৭, ১২:২৪ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ পাকিস্তান সুপার লিগ খেলছেন। শ্রীলঙ্কায় যে ১৬ জনের দল টেস্ট খেলতে যাবে, তার বাকি ১৩ সদস্য গতকালকের মত আজও সকাল থেকে সূর্য্য ডোবার আগ পর্যন্ত নিবিড় ও কঠোর অনুশীলনে কাটালেন।
ওই বহরের বাইরে আরও একজন অনুশীলনে না থেকেও ঠিক সকাল সকাল শেরে বাংলায় এসে উপস্থিত। তিনি মাশরাফি বিন মর্তুজা। সীমিত ওভারের ফরম্যাটে টিম বাংলাদেশের অধিনায়ক।
গত শুক্র ও শনিবার সকালে তার দেখা মিললো। ঠিক বরাবরের মতই। মুখে হাসি। খানিক দুলকি চালে  হেঁটে কখনো একাডেমি মাঠের প্রবেশ পথে দাঁড়িয়ে উপস্থিত সাংবাদিকদের সাথে আড্ডায় মশগুল। আবার কখনও জিমে কাটালেন। কি অবস্থা নড়াইল এক্সপ্রেসের? নিউজিল্যান্ড সফরের শেষ টি-টোয়েন্টিতে বল  লেগে ডান হাতের কব্জিতে  যে ফ্র্যাকশ্চার হয়েছিল তা কি ভাল হয়েছে? এখন কেমন আছেন মাশরাফি? কব্জির ফ্র্যাকশ্চারের কী অবস্থা? সম্পূর্ণ  সেরে গেছে? শ্রীলঙ্কা সফরের আগে  কি সম্পূর্ন সুস্থ হয়ে উঠবেন?
জাতীয় দলের শ্রীলঙ্কা যাওয়ার সময় যত ঘনিয়ে আসছে, অগনিত মাশরাফি ভক্ত ও টাইগার সমর্থকের মনে এ প্রশ্ন ততই উঁকি দিয়ে যাচ্ছে। আপনাদের নিশ্চয়ই মাশরাফির সর্বশেষ অবস্থা জানতে খুব ইচ্ছে করছে? তাহলে শুনুন, মাশরাফি এখনো সম্পূর্ণ সুস্থ নন। যদিও হাতে প্লাস্টার নেই। খুলে ফেলা হয়েছে। তবে ডান হাতের কব্জিতে একটা কাল রঙের হ্যান্ড গ্লাভসের মত আঁটা আছে। আজকাল  মোটর সাইকেল চালানোর সময় অনেকেই হাতে গ্লাভস ব্যবহার করেন, অনেকটা  সে রকম। একদম পুরো কব্জি গ্লাভসে ঢাকা  নেই। মুলতঃ ফ্র্যাকশ্চারের জায়গাটা ঢাকা। গতকাল  দুপুরে তার ফ্র্যাকশ্চারের জায়গায় আবার স্ক্যান করা হয়েছে। স্ক্যান রিপোর্ট ভালো। অগ্রগতি আছে। তবে বিসিবির প্রধান চিকিৎসক  দেবাশীষ  চৌধুরীর ভাষায়, অবস্থার উন্নতি ঘটছে অবশ্যই। তবে  সেটা খুব ধীর গতিতে। গতকাল  দুপুরে তার সহযোগীরা যখন  শেরে বাংলার মূল মাঠ, ইনডোর ও একাডেমিতে অনুশীলনে ব্যস্ত, ঠিক তখন নিজে গাড়ী ড্রাইভ করে ডাক্তার  দেবাশীষকে নিয়ে স্ক্যান করাতে  গেলেন মাশরাফি।
তার স্ক্যান রিপোর্ট নিয়ে ডা. দেবাশীষ চৌধুরী বলেন, ‘হ্যাঁ, মাশরাফি ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছেন। ফ্র্যাকশ্চার হওয়া জায়গাটা ধীরে ধীরে ভালোর দিকে। তবে পুরোপুরি সারতে আরও সময় লাগবে।’
ঠিক এক মাস পর শ্রীলঙ্কার সাথে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শুরু হবে। বিসিবি প্রধান চিকিৎসকের ধারণা ও বিশ্বাস, তার আগেই মাশরাফি সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠবেন। তাই  তো মুখে এমন কথা, ‘২৫ মার্চ প্রথম ওয়ানডে। এখনো সময় আছে ঠিক এক মাস। আশা করছি ততদিনে মাশরাফি সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠবেন।’
হাতে সময় আছে যথেষ্ঠ। তারপরও মাশরাফি এখনই কোনরকম আগাম মন্তব্য করতে নারাজ, ‘হ্যাঁ আমি নিশ্চিত শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের আগেই সুস্থ হয়ে উঠব এবং খেলবো’- এখনই এমন কথা জোর দিয়ে বলতে নারাজ বাংলাদেশ ওয়ানডে ক্যাপ্টেন। তার কথা, ‘এত শীঘ্রই  কোনরকম চুড়ান্ত মন্তব্য করা ঠিক হবে না। সময় আছে যথেষ্টই। দেখা যাক।’
জাগো নিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ