কেরলে হিন্দু যুগলের বিয়ে হল মসজিদে, কনেকে দু’লক্ষ টাকা এবং দশ ভরি সোনা দেয়া হল উপহার

আপডেট: জানুয়ারি ২০, ২০২০, ১২:০৩ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


গোটা দেশে চলছে ধর্মের রাজনীতি। ফের দেখা দিয়েছে বিভাজনের রাজনীতি। কিন্তু এসবের মধ্যেই কেরলের একটি মসজিদে রোববার বিয়ে সারলেন এক হিন্দু যুগল। গড়লেন সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির নজির। মসজিদ কর্তৃপক্ষই বিয়েতে সবরকমভাবে সাহায্য করেছেন। এমনকি এদিন বিয়ের সময় কনে অঞ্জুকে উপহার হিসেবে দশভরি সোনা এবং দু’লক্ষ টাকাও দেন তাঁরা।
সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এই ঘটনাটি ঘটেছে কেরলের কায়ামকুলাম জেলার চেরাভেল্লি গ্রামে। বেশ কয়েকদিন আগে থেকেই চেরাভেল্লির অঞ্জু এবং কৃষ্ণপুরম এলাকার শরতের বিয়ে ঠিক হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু অঞ্জুর বাবা অশোকানের মৃত্যুর পর থেকে মা বিন্দুর সংসার চালানো কষ্টসাধ্য হয়ে পড়ে। ফলে তাঁর পক্ষে বিয়ের সমস্ত খরচ জোগানো অসম্ভব হয়ে পড়ে। এক প্রতিবেশী তাঁকে পরামর্শ দেন সমস্যাটি জামাত কমিটিকে জানাতে। এরপরই ধর্ম নিয়ে ভেদাভেদ না করে সাহসিকতার সঙ্গে জামাত কমিটিতে ঘটনাটি জানান। সমস্ত পরিস্থিতি জেনে তাঁর পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয় চেরাভেল্লির মুসলিম জামাত কমিটি। তাঁরা খরচ দিতে রাজিও হয়ে যান।
সেই মতোই এদিন বেলা সাড়ে ১১ টা থেকে সাড়ে ১২টার মধ্যে সম্পন্ন বিয়ের প্রক্রিয়া। ধর্মীয় ভেদাভেদ ভুলে এলাকার অনেকেই তাতে সামিল হন। প্রায় ১০০০ জনের খাওয়া-দাওয়ার বন্দোবস্তও করেন তাঁরা।
তথ্যসূত্র: আজকাল

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ