কে হচ্ছেন ভারতের পরবর্তী কোচ!

আপডেট: জুন ২২, ২০১৭, ১২:৫১ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


অনিল কুম্বলে পদত্যাগ করেছেন। ভারতীয় ক্রিকেট দলের ভেতর গুঞ্জন চলতে থাকার পর অবশেষে কোহলির পদত্যাগ যেন একটা সমাধান এনি দিয়েছে। তবে, কুম্বলের পদত্যাগ বিতর্কের সমাধান নাকি উসকে দেয়া- সেটাই এখন সঠিকভাবে খুঁজছে ভারতীয় বিশ্লেষকরা।
তবে, ভারতীয় ক্রিকেটে এখন সবচেয়ে বড় বিষয় হচ্ছে নতুন কোচ নির্বাচন। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি চলাকালেই নতুন কোচের আবেদন পত্র আহ্বান করেছিল বিসিসিআই। ৩১মের মধ্যেই আবেদন পত্র জমা দেয়ার সর্বশেষ তারিখ শেষ হয়ে গেছে। বেশ কিছু আবেদন পত্র জমা পড়েছে। এর মধ্য থেকে সংক্ষিপ্ত তালিকা বাছাই করে তুলে দেয়া হয়েছে ক্রিকেট অ্যাডভাইজরি কমিটির (সিএসি) হাতে। যে কমিটির তিন সদস্য হলেন শচিন টেন্ডুলকার, ভিভিএস লক্ষ্মণ এবং সৌরভ গাঙ্গুলি।
আপাতত পাঁচটি নাম রয়েছে শচীন-সৌরভদের হাতে। বিরেন্দর শেবাগ, টম মুডি, রিচার্ড পাইবাস, লালচাঁদ রাজপুত এবং ডোডা গণেশ। গুঞ্জন শুরু হয়ে গেছে, আবেদন না করা সত্ত্বেও এই তালিকায় যোগ হয়ে যেতে পারে রবি শাস্ত্রির নামও।
গুঞ্জন শুরু হয়ে গেছে, কে হচ্ছেন বিরাটদের পরবর্তী প্রধান কোচ। এ মুহূর্তে যে পাঁচটি নাম সিএসির হাতে রয়েছে তাদের মধ্যে এগিয়ে রয়েছেন বিরেন্দর শেবাগই। টম মুডি কিংবা রিডার্ড পাইবাসও হয়ে যেতে পারেন ভারতের কোচ। তবে স্বদেশী নীতিতে অটল থাকলে বিরেন্দর শেবাগ যে পরবর্তী কোচ হবেন, তাতে কোনো সন্দেহ নেই।
যদিও গুঞ্জন উঠেছে, রবি শাস্ত্রি ঢুকে যেতে পারেন তালিকায় এবং অধিনায়ক বিরাট কোহলি নিজেও চান শাস্ত্রি কোচ হিসেবে আবারও আসুক তাদের ড্রেসিং রুমে। এ ক্ষেত্রে নতুন কোনো নাটকীয় মোড় নেয় কি না তা বলা যাচ্ছে না। কোচ নিয়োগের জন্য যে কমিটি, সিএসি, তারা চাইলে নতুন কারও নাম সুপারিশ করে পাঠাতে পারে বিসিসিআইর কাছে। তাহলে বিসিসিআই তাকে আবেদনকারী হিসেবে গণ্য করে নেবে। এই একটি রাস্তাই খোলা আছে শাস্ত্রির আবেদনকারীর তালিকায় ঢুকে পড়ার।
অস্ট্রেলিয়ান টম মুডি সানরাইজার্স হায়দরাবাদের কোচ হিসেবে ভারতে বেশ সুনাম কামিয়েছেন। তিনিও চলে আসতে পারেন বিবেচনায়। রিচার্ড পাইবাস বাংলাদেশ এবং পাকিস্তানের কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনিও শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী।
যদিও সিএসি এখনও পর্যন্ত নতুন কোচের জন্য ইন্টারভিউই শুরু করেনি। এরই মধ্যে কুম্বলে পদত্যাগ করা ভারতীয় দলের ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে কোচের দায়িত্ব আপাতত সামলাবেন ব্যাটিং কোচ সঞ্জয় বাঙ্গার এবং ফিল্ডিং কোচ আর শ্রীধর।
ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের শীর্ষ কর্মকর্তা এবং আইপিএল চেয়ারম্যান রাজীব শুক্লা আশাবাদী শ্রীলঙ্কা সফরের আগেই নতুন প্রধান কোচ পেয়ে যাবে ভারত। তিনি স্বীকার করেন, অধিনায়ক কোহলি এবং কোচ কুম্বলের মধ্যে দ্বন্দ্ব প্রকটভাবে লেগে গিয়েছিল। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের প্রশাসক এবং সচিব চেষ্টা করেছিলেন এই বিরোধ নিষ্পত্তির করার। কিন্তু তাতে তারা ব্যর্থ হয়েছে। কুম্বলের পদত্যাগের ঘটনার পর নতুন কোচই নিয়োগ দিতে হবে এখন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ