কোনো সংঘাত হলে রেহাই নেই, জনগণ যাকে ভোট দেবে সে-ই নির্বাচিত হবে : নাটোরে নির্বাচনী জনসভা শেখ হাসিনা

আপডেট: ডিসেম্বর ২১, ২০২৩, ৭:৫৮ অপরাহ্ণ


নাটোর প্রতিনিধি:


নাটোরে আসন্ন জাতীয় দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রচার অভিযানের অংশ হিসাবে ভিডিও কনফারেন্সে এর মাধ্যমে অনুষ্ঠিত এক সভায় বক্তব্য দেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলীয় প্রধান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এসময় দলের সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জনগণ যাকে ভোট দেবে সে-ই নির্বাচিত হবে। কেউ কারো অধিকারে হস্তক্ষেপ করবেন না। এখানে কোনো রকম সংঘাত, মারামারি আমি দেখতে চাই না। কোনো সংঘাত হলে, আমার দলে যদি কেউ করে, তাহলে রেহাই নেই। তাদের বিরুদ্ধে আমি যথাযথ ব্যবস্থা নেব। সেটা মনে রাখবেন। ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয় থেকে পাঁচ জেলার নির্বাচনী জনসভায় ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি আরোও বলেন, ভোটের অধিকার দিয়েছে আওয়ামী লীগ, সেটা অব্যাহত থাকবে। এবার নির্বাচনে আপনাদের সকলকে সতর্ক থাকতে হবে। সন্ত্রাস জঙ্গিবাদ করে কোনো মানুষের ক্ষতি যেন করতে না পারে। এদিকে সকলকে সজাগ থাকার জন্য আমি আহ্বান জানাই।

শেখ হাসিনা বলেন, ৭ জানুয়ারি নির্বাচন, জনগণ ভোট দেবে। ভোটের মালিক জনগণ, এটা তাদের সাংবিধানিক অধিকার। আমরা এটা উন্মুক্ত করেছি। আমাদের নৌকার প্রার্থী আছে, স্বতন্ত্র আছে, অন্যান্য দলও আছে। প্রত্যেকে জনগণের কাছে যাবে। জনগণ যাকে ভোট দেবে সেই নির্বাচিত হবে। কেউ কারো অধিকারে হস্তক্ষেপ করবেন না। এখানে কোনো রকম সংঘাত, মারামারি আমি দেখতে চাই না। কোনো সংঘাত হলে, আমার দলের যদি কেউ করে, তাহলে রেহাই নেই। তাদের বিরুদ্ধে আমি যথাযথ ব্যবস্থা নেব। সেটা মনে রাখবেন। আমরা চাই জনগণ তার ভোটের অধিকার নির্বিঘ্নে প্রয়োগ করুক। যাকে খুশি তাকে পছন্দ করবে, তাকে ভোট দেবে। সে জয়ী হয়ে আসবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, গণতন্ত্রকে আমাদের আরও সুদৃঢ় করতে হবে। এর ব্যত্যয় ঘটলে ভবিষ্যতে বাংলাদেশ শেষ হয়ে যাবে। আজকে যতটুকু উন্নতি করেছি থাকবে না। আমারা দেশের মানুষের জন্য দিন রাত পরিশ্রম করি, বাংলাদেশ সামনে এগিয়ে যাবে। উন্নত সমৃদ্ধ ক্ষুধা মুক্ত, স্মার্ট বাংলাদেশ আমরা গড়ে যাব। জনগণকে আহ্বান জানাই, নৌকায় ভোট দিয়ে আপনাদের জন্য সেবা করার সুযোগ দিবেন।

বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) দুপুর সারে ৩ টার দিকে শহরের শের-ই-বাংলা হাই-স্কুল মাঠে জেলা আওয়ামী-লীগ আয়োজনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাডঃ সিরাজুল ইসলাম সিরাজের সভাপতিত্বে এ সভায় উপস্থিত ছিলেন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক, সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল, শফিকুল ইসলাম শিমুল, ও ডা. সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী। এতে জেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যানগণ, জেলা যুবলীগ, ছাত্রলীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত এসময় ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সে নাটোর, পাবনা, পঞ্চগর, লালমনিরহাট, এবং খাগড়াছড়ি অঞ্চলের দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে সংযুক্ত হন এবং স্ব-স্ব জেলার নেতৃবৃন্দে সাথে কথা বলেন। নির্বাচনের প্রচার অভিযানকে সফল করতে সকল স্তরের নেতাকর্মীকে স্ব-স্ব অঙ্গ সংগঠনের বেনার, প্লেকার্ড, সরকারের উন্নয়নের স্থিরচিত্র সহ সুসজ্জিত ভাবে শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়।

Exit mobile version