কোভিড-১৯: চিকিৎসক নিয়োগে ‘আসছে’ বিশেষ বিসিএস

আপডেট: July 7, 2020, 1:30 pm

সোনার দেশ ডেস্ক:


কোভিড-১৯ সঙ্কটে জরুরি ভিত্তিতে আরও দুই হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দিতে বিশেষ বিসিএস নেওয়ার প্রস্তাব করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।
এ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ থেকে সম্প্রতি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে এ সংক্রান্ত প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন পেলে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি) সে অনুযায়ী বিশেষ বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করবে বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।
জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের নিয়োগ, পদোন্নতি ও প্রেষণ অনুবিভাগের উপসচিব (প্রেষণ-১ শাখা) মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ মঙ্গলবার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ দুই হাজার চিকিৎসক নিয়োগের জন্য রিকুইজিশন দিয়েছে।
“এখন প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন পেলে তা সরকারি কর্ম কমিশনে পাঠানো হবে। এরপর পিএসসি এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেবে।”
শুধুমাত্র চিকিৎসক নিয়োগ দিতে ৩৯তম বিশেষ বিসিএস নিয়েছিল পিএসসি। ওই বিসিএসের মাধ্যমে চার হাজার ৫৪২ জনকে সহকারী সার্জন এবং ২৫০ জনকে সহকারী ডেন্টাল সার্জন পদে নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল।
লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলেও পদ না থাকায় সে সময় ৮ হাজার ১০৭ জন নিয়োগের জন্য সুপারিশ পাননি। করোনাভাইরাস সংকট মোকাবেলায় তাদের মধ্যে থেকে দুই হাজার জনকে গত ৪ মে সহকারী সার্জন পদে নিয়োগ দেওয়া হয়।
দেশে কোভিড-১৯ সংক্রমণ বাড়তে থাকলে তা মোকাবেলায় আরও দুই হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দেওয়ার ভাবনা সরকারের রয়েছে বলে গত ২২ জুন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক জানিয়েছিলেন।
স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ থেকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো প্রস্তাবে বলা হয়েছে, করোনাভাইরাস মোকাবেলায় দেশের সরকারি হাসপাতালগুলোকে প্রস্তুত করা হয়েছে। পাশাপাশি বসুন্ধরা কনভেনশন সেন্টার এবং ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের একটি মার্কেটকে আইসোলেশন সেন্টারে রূপান্তর করা হয়েছে।
সারা দেশে এ রোগের চিকিৎসা দিতে পারে এমন বেসরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং বেসরকারি ক্লিনিকের ম্যাপিং করা হচ্ছে। এসব হাসপাতালে স্বাভাবিকভাবে আরও চিকিৎসক ও নার্স প্রয়োজন হবে।
জরুরিভিত্তিতে চিকিৎসক নিয়োগের উদ্যোগ নেওয়া কথা জানিয়ে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ বলেছে, প্রয়োজনে এ সংক্রান্ত প্রস্তাবে পরে প্রশাসনিক উন্নয়ন সংক্রান্ত সচিব কমিটির অনুমোদনসহ যাবতীয় প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে।
এককালীন চিকিৎসক নিয়োগের জন্য ৩৯তম বিশেষ বিসিএসের আগে বিধিমালা সংশোধন করে পিএসসি। তাতে ২০০ নম্বরের এমসিকিউ এবং ১০০ নম্বরের মৌখিক পরীক্ষা নিয়েই চিকিৎসক নিয়োগের সুযোগ তৈরি হয়।
বিধিমালা সংশোধন হওয়ায় আবারও একই পদ্ধতিতে অর্থাৎ, শুধুমাত্র এমসিকিউ ও মৌখিক পরীক্ষা নিয়ে বিশেষ বিসিএস নেওয়া সম্ভব বলে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, “মহামারীর মধ্যে কীভাবে এই বিশেষ বিসিএস নেওয়া হবে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী পিএসসি তা ঠিক করবে। কোন পদ্ধতিতে এই বিসিএস হবে তা বিজ্ঞপ্তিতে বলে দেওয়া হবে।”
তথ্যসূত্র: বিডিনিউজ