কোভিড-১৯: ভারতে ৩ মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন দৈনিক শনাক্ত

আপডেট: জুন ২১, ২০২১, ১২:৩৬ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কা সামলে উঠতে থাকা ভারতে প্রায় তিন মাসের মধ্যে একদিনে সবচেয়ে কম নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে।
দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া তথ্যে দেখা গেছে, সোমবার সকালের আগের ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে ৫৩ হাজার ২৫৬ জন রোগী শনাক্ত হয়েছে।
করোনাভাইরাস সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হওয়ার পর ৮৮ দিনের মধ্যে এটাই সর্বনিম্ন দৈনিক শনাক্ত বলে জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম। একে সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে ভাটার টান শুরু হওয়ার স্পষ্ট ইঙ্গিত বলে মনে করা হচ্ছে।
নতুন আক্রান্তদের নিয়ে দেশটিতে শনাক্ত মোট রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে দুই কোটি ৯৯ লাখ ৩৫ হাজার ২২১ জনে। শনাক্ত রোগীর সংখ্যায় শীর্ষে থাকা যুক্তরাষ্ট্রের পর দ্বিতীয় স্থানে আছে ভারত।
একই সময় দেশটিতে আরও ১৪২২ জন কোভিড-১৯ রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এদের নিয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা তিন লাখ ৮৮ হাজার ১৩৫ জনে দাঁড়িয়েছে। মৃত্যুর সংখ্যায় যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলের পর তৃতীয় স্থানে আছে ভারত।
ভারতের বিহার, মহারাষ্ট্রসহ অন্তত ছয়টি রাজ্যে মহামারীতে মৃত্যুর প্রকৃত সংখ্যা সরকারি হিসাবে উঠে আসেনি বলে ধারণা করা হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে করোনাভাইরাসজনিত সব মৃত্যুকে ‘কোভিড মৃত্যু’ হিসেবে নথিবদ্ধ করতে হবে বলে দেশটির সর্বোচ্চ আদালতের কাছে দেওয়া এক হলফনামায় বলেছে কেন্দ্রীয় সরকার।
দেশটিতে টানা ৩৯ দিন ধরে সুস্থ হওয়া রোগীর চেয়ে নতুন সংক্রমণ কম পাওয়া যাচ্ছে। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে ৭৮ হাজার ১৯০ জন রোগী রোগমুক্ত হয়েছেন।
সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের প্রকোপ কমে আসতে থাকায় দিল্লি সরকার সোমবার থেকে বার খোলার অনুমতি দিয়েছে ও রেস্তোরাঁ খোলা রাখার সময় দুই ঘণ্টা বাড়িয়েছে। পাশাপাশি পার্ক, বাগান, গলফ ক্লাব ও উন্মুক্ত স্থানে যোগব্যায়ামের ওপর বিধিনিষেধ তুলে নেওয়া হয়েছে।
দিল্লির পার্শ্ববর্তী হরিয়ানা রাজ্য জারি থাকা লকডাউনের মেয়াদ ২৮ জুন পর্যন্ত বাড়িয়েছে। তবে বিয়ে, অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার ওপর আরোপিত বিধিনিষেধ শিথিল করেছে। কর্পোরেট দপ্তরগুলোকে পূর্ণ উপস্থিতি যোগে কার্যক্রম শুরু করারও অনুমতি দিয়েছে।
সোমবার থেকে ফের টিকা নীতি পরিবর্তন করে ১৮ বছরের উর্ধ্বে সবাইকে বিনামূল্যে টিকা দেওয়া শুরু করছে দেশটির স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ।
তথ্যসূত্র: বিডিনিউজ

 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ