কোভ্যাক্স থেকে এক কোটি ৯ লাখ টিকা পাচ্ছে বাংলাদেশ

আপডেট: মার্চ ৩, ২০২১, ৩:০৯ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


প্রথম ধাপে করোনাভাইরাসের টিকা বিতরণের তালিকা প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। এই তালিকায় বাংলাদেশেরও নাম রয়েছে। বাংলাদেশের জন্য এক কোটি ৯ লাখ আট হাজার ডোজ ভ্যাকসিন বরাদ্দ করা হয়েছে।
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও ভ্যাকসিন অ্যালায়েন্স গাভি পরিচালিত কোভ্যাক্স কর্মসূচি থেকে এসব টিকা সরবরাহ করা হবে। এর সিংহভাগই সেরাম ইনস্টিটিউট অব ইন্ডিয়ার উৎপাদিত অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন। মঙ্গলবার জিএভিআই-এর ওয়েবসাইটে দেওয়া এক বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।
গিএভিআই-এর ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তালিকায় বাংলাদেশসহ ১৩৮টি দেশের নাম রয়েছে।
২০২১ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি কোভ্যাক্স থেকে প্রথম ভ্যাকসিন পায় পশ্চিম আফ্রিকার দেশ ঘানা। অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা উদ্ভাবিত ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের তৈরি টিকার ছয় লাখ ডোজ সেদিন একটি ফ্লাইটে ঘানার রাজধানী আক্রায় পৌঁছায়। এই বছরের শেষ নাগাদ বিশ্ব জুড়ে ২০০ কোটি ডোজ টিকা বিতরণের লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে কোভ্যাক্স।
বিশ্বের সব দেশের মধ্যে করোনাভাইরাসের টিকার সমবন্টন নিশ্চিত করতে গঠন করা হয় এই কোভ্যাক্স কর্মসূচি।
কোভ্যাক্স-এর পূর্ণাঙ্গ রূপ হলো কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনস গ্লোবাল অ্যাকসেস ফ্যাসিলিটি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সস্থা (ডব্লিউএইচও) ছাড়াও উদ্যোগটির সঙ্গে রয়েছে কোয়ালিশন ফর এপিডেমিক প্রিপেয়ার্ডনেস ইনোভেশন ও দাতব্য সংস্থা গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ভ্যাকসিন অ্যান্ড ইমিউনাইজেশন (জিএভিআই)। এ উদ্যোগের লক্ষ্য হচ্ছে, ভ্যাকসিন মজুত করে না রেখে ধনী-গরিব নির্বিশেষে সর্বোচ্চ ঝুঁকির দেশগুলোতে তা বণ্টন করার জন্য বিভিন্ন দেশের সরকারকে উৎসাহিত করা।
তথ্যসূত্র: বাংলাট্রিবিউন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ