কোরবানির পশু পরিবহনে বিশেষ ট্রেন, কিমি প্রতি খরচ ২০ টাকা

আপডেট: জুলাই ২৫, ২০২০, ১:৫০ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক :


মহামারির করোনার মধ্যে ‘ম্যাংগো স্পেশাল’ দিয়ে রাজধানীতে মৌসুমী ফল আম পরিবহনের পর এবার আসন্ন কোরবানি ইদ উপলক্ষে রাজশাহী থেকে ‘ক্যাটেল স্পেশাল’ ট্রেন (কোরবানির পশু আনা-নেওয়ার জন্য বিশেষ ট্রেন) চালু হচ্ছে। ইদুল আজহা উপলক্ষে ট্রেনে করে কোরবানির পশু পরিবহনের উদ্যোগ নিয়েছে রেল মন্ত্রণালয়।
ইদের আগে কোরবানির পশু পরিবহনের লক্ষ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-ঢাকা-চাঁপাইনবাবগঞ্জ রুটে একজোড়া এবং খুলনা-ঢাকা-খুলনা রুটে একজোড়া করে মোট দুই জোড়া ‘ক্যাটেল স্পেশাল’ ট্রেন চালানোর প্রস্তুতি নিয়েছে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে। এখন পশু ব্যবসায়ীদের চাহিদা অনুযায়ী উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চল থেকে দুই জোড়া ট্রেন চলাচল শুরু করতে যাচ্ছে। যাতে খরচ হবে কিলোমিটার প্রতি মাত্র ২০ টাকা।
এখন ব্যবসায়ী ও খামারিদের কাছ থেকে চাহিদা পাওয়ার পরপরই ‘ক্যাটেল স্পেশাল’ ট্রেন চলাচলের দিনক্ষণ নির্ধারণ করা হবে বলে জানানো হয়েছে। তাই রেলপথে পশু পরিবহনের জন্য সংশ্লিষ্ট স্টেশন মাস্টারের সঙ্গে যোগাযোগ করে চাহিদা দেওয়ারও অনুরোধ জানানো হয়েছে। এর মাধ্যমে মাত্র প্রায় ৫৪০ টাকায় একটি গরু রাজশাহী থেকে ঢাকায় পরিবহন করা যাবে।
ট্রেনে পশু পরিবহনের বিষয়ে রাজশাহী অঞ্চলের গরু খামারি, ব্যবসায়ী, উপজেলা ও জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তাদের সঙ্গে কয়েক দফা বৈঠক করে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে। এরপরই সংশ্লিষ্টদের সুপারিশমালা অনুযায়ী মধ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-ঢাকা-চাঁপাইনবাবগঞ্জ রুটে একজোড়া ও খুলনা-ঢাকা-খুলনা রুটে এক জোড়া ‘ক্যাটেল স্পেশাল’ ট্রেন চালানোর বিষয়ে পশ্চিমাঞ্চলের রেলওয়ের পক্ষ থেকে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।
ট্রেনে কোরবানির পশুগুলো স্বল্প খরচে ও রাস্তায় ভোগান্তি ছাড়া, আরামদায়ক পরিবেশে ঢাকায় নেওয়ার জন্য এরইমধ্যে সব ধরনের প্রস্তুতি শেষ করা হয়েছে। ট্রেন দুটি চালানোর জন্য দুটি রেকও প্রস্তুত রাখা হয়েছে।
পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মকর্তা (পাকশী) ফুয়াদ হোসেন আনন্দ বাংলানিউজকে বলেন, প্রান্তিক খামারীদের উৎসাহ প্রদান এবং কোরবানির পশু সহজে ভোক্তাদের নিকট পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে খুব অল্প টাকায় পশু পরিবহনের জন্য এ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ-ঢাকা-চাঁপাইনবাবগঞ্জ রুটে চলাচল করা ট্রেন বিকেল সাড়ে ৪টা নাগাদ চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ছেড়ে আমনুরা বাইপাস, কাকনহাট, রাজশাহী, হরিয়ান, উল্লাপাড়া জয়দেবপুর ,ধীরাশ্রম, টঙ্গী ও তেজগাঁও স্টেশনে যাত্রা বিরতি দিয়ে রাত ৩টা ৪৫ মিনিট নাগাদ ঢাকা পৌঁছাবে।
এছাড়া খুলনা-ঢাকা-খুলনা রুটে চলাচল করা ট্রেনটি দুপুর ১টা নাগাদ খুলনা থেকে যশোর, মোবারকগঞ্জ, কোটচাঁদপুর, চুয়াডাঙ্গা, আলমডাঙ্গা, পোড়াদহ, ঈশ্বরদী, জয়দেবপুর, ধীরাশ্রম, টঙ্গী, তেজগাঁও স্টেশনে যাত্রা বিরতি দিয়ে রাত ৩টা নাগাদ ঢাকা পৌঁছাবে।
ফুয়াদ হোসেন আনন্দ আরও বলেন, রেলে কোরবানির পশু পরিবহনে কিলোমিটার প্রতি মাত্র ২০ টাকা খরচ হবে। এর সঙ্গে কিছু টার্মিনাল চার্জ এবং সারচার্জ পরিশোধ করতে হবে। এছাড়া ব্রডগেজের একটি ওয়াগনে ২০টি গরু পরিবহন করা যাবে।
তথ্যসূত্র: বাংলানিউজ