কোল্ড ড্রিংকের বোতলে ইউরিন, ক্ষমা চেয়ে কী জানাল ফুড ডেলিভারি সংস্থা

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২১, ৫:১৫ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


আজকাল অনেকেই বাড়িতে রান্নাবান্নার ঝামেলায় না গিয়ে অনলাইনে খাবারের অর্ডার করেন। কোনও পরিবারে আবার বিশেষ বিশেষ দিনে অনলাইনে ফুড ডেলিভারি সংস্থাগুলি থেকে খাবার অর্ডার করে। এতে কিছুটা টাকা যায় বটে, কিন্তু ওইদিনের মতো গিন্নিরা রান্নাঘর থেকে ছুটি পান। আবার মেনুতেও থাকে ভালো আইটেম। অনেক সময় বাড়িতে একা থাকলে রান্নাবান্না করা ঝামেলার কাজ। তখন উপযোগী হিসেবে প্রমাণিত হয় এই সংস্থাগুলি।
কিন্তু এবারে একেবারে উল্টো কাণ্ড। অনলাইন ফুড ডেলিভারি সংস্থা থেকে করে কোল্ড ড্রিংক অর্ডার করে ইউরিন পেলেন ইংল্যান্ডের এক ব্যক্তি। সম্প্রতি তিনি হোম ডেলিভারি ফুড অর্ডার করেন, আর সেখানেই এই কাণ্ড। অলিভার ম্যাকমেনিস নামের এই ব্যক্তি যখন কোল্ড ড্রিংক খোলেন, দেখেন তাতে হলুদ তরল। পরে তিনি বুঝতে পারেন সেটি ইউরিন। এরপরেই ওই সংস্থাকে ট্যাগ করে তিনি জানতে চান কেন তাঁকে কোল্ড ড্রিংকের বোতলে ইউরিন পাঠানো হল?
অলিভারের টুইটটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। তার দাবি, আইটেমটি যে বাক্সে এসেছিল তা ঠিক করে সিল করা ছিল না। অলিভারের টুইটে ওই সংস্থা তৎক্ষণাৎ ক্ষমা চেয়ে নেয়। কোম্পানিকে অলিভার বলেন, তিনি চান না, যে এই কারণে কারোর চাকরি চলে যাক। কারণ করোনার পরে চাকরি যাওয়া খুবই খারাপ ব্যাপার। কিন্তু এটা অবশ্যই দুর্ভাগ্যজনক ঘটনা।
উল্লেখ্য, ওই কোম্পানির নাম হ্যালো ফ্রেশ। বহু মার্কিন সেলিব্রিটিও এই ব্র্যান্ডটি পছন্দ করেন। ১২ টি দেশে রমরমিয়ে ব্যবসা করছে এই সংস্থা। একটি অ্যাপের মাধ্যমে গ্রাহকদের অর্ডার পাওয়ার পরে সেই খাবার গ্রাহককে পৌঁছে দেয় এই সংস্থা।
হ্যালো ফ্রেশের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, আমাদের গ্রাহককে এই ধরনের পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যেতে হল বলে আমরা অত্যন্ত দুঃখিত। যখন আমরা ওই বক্স পাঠিয়েছিলাম, তখন ওটি পুরো সিল ছিল। বক্সটি ইন্টারনাল সব চেকিং পার করেই ডেলিভারি করতে দেওয়া হয়েছিল বলে জানিয়েছেন তিনি।
পাশাপাশি তিনি বলেন, আমরা আমাদের ডেলিভারি পার্টনারের কাছে প্রশ্ন রেখেছি, যে বক্সটি কেন খোলা ভাবে গ্রাহকের কাছে সরবরাহ করা হয়েছে। তবে আমরা সরাসরি গ্রাহকের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছি। এই সঙ্গে ওই গ্রাহককে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে একটি খাবার বক্সও শুভেচ্ছাবার্তা হিসেবে পাঠানো হয়েছে। আমরা খুব পরিশ্রম করছি যাতে অন্য কোনও গ্রাহককে আবার এমন পরিস্থিতির শিকার না হতে হয়।
তথ্যসূত্র: kolkata24x7

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ