ক্রিকেটারদের ক্যাম্প যখন মিলনমেলা

আপডেট: জুলাই ১১, ২০১৭, ১২:৪১ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


মাঠে খেলা না থাকায় এবারের ঈদে বেশ লম্বা ছুটি পেয়েছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। সে সুযোগে প্রায় সকল ক্রিকেটারই নাড়ির টানে ছুটে গেছেন গ্রামের বাড়িতে। একজন এ ছুটিতে বিয়েটাও সেরে নিয়েছেন। তবে ঈদের ছুটি কাটিয়ে কেউ কেউ আগে ভাগেই শেরে বাংলায় পা রাখলেও আনুষ্ঠানিকভাবে সোমবারই শুরু হলো টাইগারদের ফিটনেস ক্যাম্প। প্রথম দিনে উপস্থিত ছিলেন ২০ টাইগার। ঈদের ছুটি কাটিয়ে জাতীয় ক্রিকেটারদের প্রথম দিনের ক্যাম্প রীতিমতো মিলনমেলায় পরিণত হলো।
এদিন সকাল ৯টার আগেই শেরে বাংলায় উপস্থিত হতে থাকেন ক্রিকেটাররা। ৯টায় তারা রিপোর্ট করেন ট্রেনার মারিও ভিল্লাভারায়েনের কাছে। এরপর দলের সবাই একযোগে মিরপুর শেরে বাংলার মূল মাঠ পরিদর্শনে যান। মাঠের সংস্কারের কাজের কারণে গত ছয় মাস ধরেই খেলা বন্ধ রয়েছে। তবে সংস্কার শেষে প্রায় শেষ হয়ে এসেছে কাজ। তাই সারেজমিনে দেখতেই মাঠে যান তারা।
একাডেমি মাঠের জিমনেশিয়ামে গিয়ে শুরু হয় ‘বিপ টেস্ট’। ক্রিকেটারদের ফিটনেসের বর্তমান অবস্থাটা দেখে নেওয়া হয়। এ টেস্টের পর জাতীয় দলের স্ট্রেংথ অ্যান্ড কন্ডিশনিং কোচ মারিও বললেন, ‘দীর্ঘসময় পর ফিটনেস ক্যাম্প হচ্ছে আমাদের। ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট মিলিয়ে আমরা প্রায় ৮ মাস টানা খেলার মধ্যে আছি। কার ফিটনেস এখন কোন অবস্থায় আছে আলাদা করে দেশে নেওয়ার জন্য এটা ভালো সুযোগ। আগামী তিন থেকে ছয় সপ্তাহ তাদের ফিটনেসের ঘাটতি অনুযায়ী কাজ করা হবে।’
বাংলাদেশ জাতীয় দলের সঙ্গে মারিও আছেন প্রায় তিন বছরে। আর এ সময়ে অনেক বদলেছে বাংলাদেশ। শুধু মাঠের পারফরম্যান্সই নয়, বদলে তাদের মানসিকতা। এখন ক্রিকেটাররা নিজেরাই নিজেদের কাজগুলো করেন বলে জানান মারিও, ‘তিন বছর ধরে আমি বাংলাদেশ দলের সঙ্গে আছি। এখন দলের মনোভাবে পরিবর্তন এসেছে। তারা এখন আরও বেশি কিছু করতে চায়। আরও বেশি পরিশ্রম করতে চায়। এখন তারা নিজেরাই অনুশীলন করে যেটা আগে তেমন ছিল না।’
আগস্টের মাঝামাঝি সময়ে বাংলাদেশে আসার কথা রয়েছে অস্ট্রেলিয়ার। এরপর টাইগাররা যাবে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে। এ দুই সিরিজকে লক্ষ্য রেখে কন্ডিশনিং ক্যাম্পের ২৯ সদস্যের দল ঘোষণা করা হয়। তবে এদিন উপস্থিত ছিলেন ২০ জন। এইচপি দলের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়া সফরে গেছেন লিটন কুমার দাস, তানবীর হায়দার, এনামুল হক বিজয়, মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন ও আবুল হোসেন রাজু। কাউন্টি খেলতে ইংল্যান্ডে আছেন তামিম ইকবাল। আর ইনজুরির কারণে নেই রুবেল হোসেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ