ক্রিকেটার সজীবের পরিবারের পাশে থাকবে বিসিবি

আপডেট: November 18, 2020, 10:23 pm

সোনার দেশ ডেস্ক:


গত শনিবার রাতে আত্মহত্যা করেছেন ২০১৮ সালের অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ দলে বিকল্প খেলোয়াড় হিসেবে থাকা সজীবুল ইসলাম সজীব। জুনিয়র এই ক্রিকেটারের আত্মহনন নাড়া দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে। অকালে চলে যাওয়া রাজশাহীর এ ক্রিকেটারের পরিবারের পাশে দাঁড়াচ্ছে বাংলাদেশের ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা। দেয়া হবে আর্থিক সহায়তা।
এ ব্যাপারে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, ‘সজীবের পরিবারের সঙ্গে বোর্ড থেকে যোগাযোগ করা হচ্ছে। আমরা চেষ্টা করবো অবশ্যই তার পরিবারকে সাহায্য (আর্থিক) করতে।’
সজীবের পরিবারের দাবি, ২৪ নভেম্বর থেকে শুরু হতে হওয়া বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের প্লেয়ার্স ড্রাফটে নাম না থাকায় হতাশ হয়ে আত্মহননের পথ বেছে নেন ২২ বছর বয়সী ক্রিকেটার। সজীব রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার ঝালুকা গ্রামের মুরসেদ আলীর ছেলে। সজীবের বড় ভাই তশিকুল ইসলাম জানান, ছোটবেলা থেকেই ক্রিকেট খেলার প্রতি অনেক আগ্রহ ছিল তার। খেলার জন্য বাবার বকাও খেতে হয়েছে তাকে । একসময় নিজেকে গড়ে তুলতে ভর্তি হয়েছিলেন রাজশাহীর কাটাখালী বাংলা ট্র্যাক ক্রিকেট একাডেমিতে। শুরু হয় তার সামনে এগিয়ে চলা। এক এক করে তিনি জাতীয় অনূর্ধ্ব ১৫, ১৭ ও ১৯ দলে খেলেছেন। জাতীয় অনূর্ধ্ব-১৯ দলের হয়ে শ্রীলঙ্কায় কয়েকটি দলের সঙ্গে প্রস্তুতি ম্যাচও খেলেছেন। ভারতের বিপক্ষে একটি ম্যাচে ব্যাট করে সর্বোচ্চ ৯৫ রান করেছিলেন। দলের সর্বোচ্চ রান সংগ্রহাকই ছিলেন তিনি ওই ম্যাচে।-বাংলা ট্রিবিউন