ক্ষুধায় যখন তখন

আপডেট: নভেম্বর ১৯, ২০১৬, ১১:৩১ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক
ক্ষুধা মানুষের সাধারণ প্রবৃত্তি। ক্ষুধার তাড়না থেকেই মানুষের চাহিদা এবং জীবিকার জন্ম। ক্ষুধা নিবারণের জন্যই মানুষ খাবার খায়। তবে সেই খাবারকে অবশ্যই স্বাস্থ্যসম্মত হতে হবে।
খাদ্য শুধু মানুষের ক্ষুধা নিবারণ করে না বরং মানুষের শরীরে শক্তি যোগায়। তাই ক্ষুধা লাগলে বাইরের জাঙ্ক ফুড বা অন্যান্য অস্বাস্থ্যকর খাবার না খাওয়া ভালো। তার থেকে সঙ্গে রাখতে পারেন কিছু বিশেষ খাবার যা আপনার ক্ষুধা মেটাবে আবার স্বাস্থ্যকর হবে।
আর যদি বাড়িতেই থাকেন তাহলে ঝটপট হাতের কাছে তৈরি রাখুন কিছু স্বাস্থ্যকর খাবার। যাতে ক্ষুধা লাগলে যখন তখন খেতে পারেন। আসুন জেনে নিই এমন কিছু খাবার সম্পর্কে।
বাদাম : বাদামে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন এবং ফাইবার রয়েছে। এটি খুব দ্রুত ক্ষুধা নিবারণে সহায়তা করে। অবশ্য অসাময়িক ক্ষুধা মেটানোর জন্য অনেক খানি বাদাম খাওয়ার দরকার হয় না। খুবই পুষ্টি সমৃদ্ধ খাবার হচ্ছে বাদাম। প্রতিদিন অন্তত ৭টি করে বাদাম খেলে মানুষের মনোযোগ বৃদ্ধি পায় এবং এটি ক্যানসার ও আরথ্রাইটিসের মতো রোগ প্রতিরোধে সাহায্য করে।
ফল : আপনি যদি হালকা নাস্তাতে বা যখন তখন ক্ষুধায় কিছু খাবার চেয়ে থাকেন তাহলে ফল খেতে পারেন। স্বাদ এবং স্বাস্থ্য দুটোই বজায় থাকবে। বিশেষ করে আপেল। বলা হয়ে থাকে যে, প্রতিদিন একটি করে আপেল খেলে শরীরে অনেক রোগ বাসা বাধতে পারে না। এর সঙ্গে যোগ করতে পারে নাট বাটার বা বাদামের মাখন। এটিও খেতে অনেক সুস্বাদু এবং স্বাস্থ্যকর।
পনির : যখন তখনকার ক্ষুধায় খেতে পারেন এক টুকরা বা স্লাইস পনির। পনিরে প্রচুর ফাইবার থাকে এবং এর অল্প পরিমাণ অংশই আপনাকে ক্ষুধা মুক্ত করে দিতে পারে মুহূর্তে। নিয়মিত পনির খাওয়া হাড়ের জন্য বেশ ভালো। তবে যারা ওজন কমানোর চিন্তা করছেন বা অন্য শারীরিক আছে তারা এই খাবারগুলো বেশ সাবধানতার সঙ্গে বাছাই করুন।
দই : হালকা খাবার হিসেবে দই বেশ ভালো। এতে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন রয়েছে। আপনি মিষ্টি এড়াতে চাইলে টক দই খেতে পারেন। আর যদি স্বাদ বাড়াতে চান তাহলে এর সঙ্গে যুক্ত করতে পারেন আপনার পছন্দের ফলের টুকরা। দই হজমের জন্যও বেশ ভালো। তাই কোনো বেলায় যদি ভারী খাবার খান এবং পরের বেলার খাবার বাদ দিতে চান সেক্ষেত্রে দই খেতে পারেন। দই পরিমাণে বেশি খেলে সমস্যা নেই তবে টক দইটাই বেশি ভালো।
সবজি : হালকা ক্ষুধায় সবজি খাবেন কথাটা শুনলেই অনেকে হেসে দেন। তবে জেনে রাখুন সবজি সব থেকে ভালো খাবার। যারা ওজন কমাতে চান ডাক্তাররা তাদেরকে বলেন সকাল বা রাতের খাবার বাদ না দিয়ে বরং শুধু সবজি খান। সবজিতে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার আছে যা অল্প পরিমাণ খেলেই এক বেলার খাওয়ার সমান হয়ে যায় কিন্তু ক্যালরি একেবারেই কম। আর আপনার সুস্থ ভাবে বেঁচে থাকার জন্য যেসকল ভিটামিন এবং মিনারেল দরকার তার সবই আছে সবজিতে। তাই নির্দ্বিধায় অল্প ক্ষুধায় খেতে পারেন সবজি।
শুকনা খাবার : শুকনা খাবার বা ড্রাই ফুড আপনার যখন তখন ক্ষুধার সঙ্গী হতে পারে। চেষ্টা করুন বাসায় এই শুকনা খাবারগুলো বানাতে। যেমন অল্প কিছু উপাদান দিয়েই বানাতে পারেন বিস্কুট অথবা ক্রাকারস। আপনি চাইলে এর সঙ্গে পছন্দের ফ্লেবার বা ফল যোগ করতে পারেন। মিষ্টি অথবা নোনতা বানাতে পারেন। এছাড়া ড্রাই ফ্রুটও রাখতে পারেন হাতের কাছে। রাইজিংবিডি