খাপড়া ওয়ার্ড দিবস আজ

আপডেট: এপ্রিল ২৪, ২০১৭, ১২:১১ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিনিধি


১৯৫০ সালের ২৪ এপ্রিল। রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের খাপড়া ওয়ার্ডে নিন্মমানের খাবার, অস্বাস্থ্যকর দুর্গন্ধময় পরিবেশ, হাঁটুগেড়ে জেলকর্তাদের কুর্নিশ করা, তেলের ঘানি টানার কাজ, কথায় কথায় মধ্যযুগীয় কায়দায় পায়ে লোহার বেড়ি ( ডাণ্ডাবেড়ি) লাগানো, মাত্র তিন বাটি পানিতে গোসল, কারণে-অকারণে অবর্ণনীয় নিপীড়ন-নির্যাতনের প্রতিবাদে অনশনরত রাজবন্দিদের ওপর সেদিন সকাল ৮টায় জেল সুপার মি. বিল, জেলার আব্দুল মান্নানসহ জেলপুলিশরা খাপড়া ওয়ার্ডে প্রবেশ করে। অনশনরত বন্দি প্রতিনিধিদের সাথে খাবারের বিষয় নিয়ে আলোচনাকালে খাবারের মান নিয়ে প্রশ্ন তোলায় জেলর মান্নানসহ মি. বিল বাদানুবাদের মধ্যে এক সময় হাতের ছড়ি দিয়ে বন্দিদের মারতে থাকেন। ্এমতাবস্থায় অসহায় বন্দিরা নিজেদের রক্ষা করতে প্রতিরোধ গড়ে তুললে জেল কর্তৃপক্ষ অ্যালার্ম হুইসেলটি বাজিয়ে দেন। ফলে পাগলা ঘণ্টা বাজিয়ে পুলিশরা খাপড়া ওয়ার্ডের চারিদিকে পজিশন নিয়ে বন্দিদের ওপর বেপরোয়া গুলিবর্ষণ শুরু করে। নিমিষেই খাপড়া ওয়ার্ড রক্তের বন্যায় ভেসে যায়। বর্বোরচিত এ্ হত্যাকাণ্ডে শহিদ হন কম্পরাম সিং, সুধীন ধর, হানিফ, দেলোয়ার হোসেন, আনোয়ার হোসেন, বিজয় সেন ও সুখেন্দু ভট্টাচার্য।
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সাতজন বীর বাঙালির স্মৃতিকে চির জাগরূক রাখতে স্বাধীনতার পর খাপড়া ওয়ার্ডে একটি স্মৃতিসৌধ নির্মাণ করে দেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ