খালেদা দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র করছেন : নানক

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৭, ১২:৪০ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


মতবিনিময় সভায় আ’লীগের যুগ্নসম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী ও কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটি সদস্য এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনসহ নেতৃবৃন্-সোনার দেশ

লন্ডনে ছেলে তারেক রহমানের কাছে গিয়ে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র করছেন বলে মন্ত্রব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক। গতকাল শনিবার দুপুরে নগর আ’লীগ কার্যালয়ে নেতাকর্মীদের সঙ্গে সভাপতির বক্তব্যে মতবিনিময়কালে নানক এ মন্তব্য করেন।
নানক বলেন, তারেক রহমান বাংলাদেশে লুটপাট চালিয়েছিলেন। তিনি দেশে রক্তের হোলি খেলেছিলেন। এরপর দেশ থেকে পালিয়েছেন। সেই তারেক রহমানের কাছে গিয়ে বেগম খালেদা জিয়া নতুন করে ষড়যন্ত্র শুরু করেছেন।
তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়া রাষ্ট্র ক্ষমতায় বসে দেশকে অচল রাষ্ট্রে পরিণত করেছিলেন। সংবিধানকে তিনি বিকৃত করেছিলেন। তিনি বাংলাদেশের মানুষের কাছে ‘আগুন সন্ত্রাসী’ নামে পরিচিত। এর বিপরীতে আওয়ামী লীগের সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এখন একজন মমতাময়ী মানুষ হিসেবে সারা বিশ্বে প্রশংসিত হচ্ছেন। জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মিয়ানমার থেকে প্রাণভয়ে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিচ্ছেন, তাদের খাবারের ব্যবস্থা করছেন। আবার নির্যাতন বন্ধে বিশ্ব নেতাদের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন। পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেয়ার আহ্বান জানাচ্ছেন। নিজের এমন ভূমিকায় প্রধানমন্ত্রী এখন সারা বিশ্বে প্রশংসিত হচ্ছেন।
আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর রাজশাহীতে প্রধানমন্ত্রীর জনসভা উপলক্ষে আওয়ামী লীগ নেতাদের সাথে এই মতবিনিময় করেন জাহাঙ্গীর কবির নানক। রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে এ সভার আয়োজন করা হয়। পবার হরিয়ান চিনিকল মাঠে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওই জনসভাকে জনসমুদ্রে পরিণত করার জন্য নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান জাহাঙ্গীর কবির নানক।
আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরীর পরিচালনায় সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও রাজশাহী মহানগরের সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাংসদ ওমর ফারুক চৌধুরী ও রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) আসনের সাংসদ আয়েন উদ্দিন।
এসময় সভায় উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, রাজশাহী-৪ আসনের সাংসদ ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক, রাজশাহী-৫ আসনের সাংসদ আবদুল ওয়াদুদ দারা, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের সাংসদ গোলাম মোস্তফা, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের সাংসদ আবদুল ওদুদ বিশ্বাস, নাটোর-৪ আসনের সাংসদ আবদুল কুদ্দুস, নওগাঁ-১ আসনের সাংসদ সাধন চন্দ্র মজুমদারসহ বিভাগের বিভিন্ন জেলা পর্যায়ের আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা। এছাড়া নেতৃবৃন্দ প্রধানমন্ত্রীর জনসভার মাঠ পরিদর্শন করেন।
এছাড়া সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, সাংসদ বেগম আখতার জাহান, আব্দুল কদ্দুস, গোলাম মোস্তফা, সেলিম উদ্দিন তরফদার, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল, নওশের আলী, সৈয়দ শাহাদত হোসেন, অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক মোস্তাক হোসেন, রেজাউল ইসলাম বাবুল, নাঈমুল হুদা রানা, সংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল আলম বেন্টু, আসাদুজ্জামান আজাদ, আসলাম সকরাক, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক ফিরোজ কবির সেন্টু, দফতর সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম বুলবুল, প্রচার সম্পাদক উপাধক্ষ্য কামরুজ্জামান, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক মীর তৌফিক আলী ভাদু, শিল্প ও বাণিজ্য সম্পাদক ওমর শরীফ রাজীব, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক কামার উল্লাহ সরকার কামাল, উপ-দফতর সম্পাদক শফিকুল ইসলাম দোলন, উপ-প্রচার সম্পাদক মীর ইসতিয়াক আহম্মেদ লিমন, সদস্য এনামুল হক কলিন্স ও রবিউল আলম রবি প্রমুখ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ