খেলাধুলা শৃঙ্খলাবোধ ও দেশপ্রেম সৃষ্টি করে : লিটন

আপডেট: সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৭, ১১:৫৫ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন সাবেক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। এসময় উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকারসহ নেতৃবৃন্দ-সোনার দেশ

ঈদ প্রীতি ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে আ’লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও নগর সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদকাসক্তি থেকে যুব সমাজকে ফিরিয়ে আনতে খেলাধুলার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেছেন, খেলাধুলা যুব সমাজের মাঝে শৃঙ্খলাবোধ ও দেশপ্রেম সৃষ্টি করে। আমাদের দেশের যুবসমাজ আজ নানাভাবে বিপথগামী হচ্ছে। মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদী কর্মকাণ্ডের দিকে তারা পা বাড়াচ্ছে। যুব সমাজকে ক্রীড়া এবং সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে সক্রিয় রাখতে পারলেই সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদকের ভয়াবহতা থেকে তাদের মুক্ত রাখা যাবে। গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় নগরীর সুজানগর মিতালী সংঘের উদ্যোগে ক্লাব চত্বরে পুরস্কার বিতরণী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
সাবেক মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, খেলাধুলা এবং সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড যুবসমাজের মাঝে অধ্যবসায়, দায়িত্ববোধ ও কর্তব্যপরায়ণতার জন্ম দেয়। খেলাধুলার সঙ্গে স্বাস্থ্য ও মনের একটা নিবিড় সম্পর্ক রয়েছে। সুস্থ দেহ মানেই সুস্থ মন। খেলাধুলা জীবনকে সুন্দর ও গতিশীল করে। কাজেই আমাদের খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার আরো বেশি সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন, নগর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক ফিরোজ কবির সেন্টু, ১৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর বেলাল আহম্মেদ, ওয়ার্ড সভাপতি সৈয়দ মন্তাজ আহম্মেদ, রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডের প্রশাসনিক কর্মকর্তা ভানু গোপাল পাল। এতে সভাপতিত্ব করেন, মিতালী সংঘের সভাপতি রফিকউদ্দিন আহম্মেদ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ