গণধ্বনি প্রতিদিনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

আপডেট: এপ্রিল ২৯, ২০২৪, ১১:২২ অপরাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক:


রাজশাহীর পাঠকপ্রিয় ‘দৈনিক গণধ্বনি প্রতিদিন’ গণমানুষের কথা বলে। এই পত্রিকার পাতায় রাজশাহী অঞ্চলের গণমানুষের কথা উঠে আসে। তাই সর্বমহলে পত্রিকাটি পাঠকনন্দিত হয়েছে। পত্রিকাটির শ্লোগান- ‘সত্যের সন্ধানে আমরা’ থেকেই বোঝা যায় এটি মানুষের সত্য কথাটা বলতে চায়। সত্য সন্ধানের এই ধারা চিরদিন অব্যাহত থাকুক। গণধ্বনি প্রতিদিন পত্রিকার অষ্টম বর্ষে পদার্পণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে আমন্ত্রিত অতিথিরা এমন মন্তব্য করেছেন।

সোমবার (২৯ এপ্রিল) দুপুরে রাজশাহী নগরীর জেলা পুলিশ লাইন ও টি-বাধ সংলগ্ন একটি অভিযাত কমিউনিটি সেন্টারে বর্ণাঢ্য আয়োজনে মধ্যে দিয়ে পত্রিকাটির ৭ম বর্ষপূর্তি ও অষ্টম বর্ষে পদার্পণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। দৈনিক গণধ্বনি পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকশাক ইয়াকুব শিকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ুন কবীর। তিনি গণধ্বনি প্রতিদিন পত্রিকাটির সংবাদের প্রশংসা করেন এবং পত্রিকাটির উত্তরোত্তর সফলতা কামনা করেন। এই সময় তিনি বলেন, পত্রিকার সাংবাদিকরা অতীতের মতো আগামীতেও ‘সত্যর সন্ধানে সারাক্ষণ’ এই শ্লোগানকে স্বরণ করে দায়িত্বশীল সাংবাদিকতা করবেন বলে তিনি প্রত্যাশা করেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, রাজশাহী মহানগর পুলিশ কমিশনারের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার একরামুল হক, রাজশাহী এডিটরস ফোরামের সভাপতি ও দৈনিক সোনালী সংবাদের সম্পাদক লিয়াকত আলী, রাজশাহী সাংবাদিক কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান ও দৈনিক সোনার দেশ পত্রিকার সম্পাদক আকবারুল হাসান মিল্লাত, রাজশাহী এডিটরস ফোরামের সাধারণ সম্পাদক ও রাজশাহী সংবাদ সম্পাদক আহসান হাবিব অপু, রাজশাহী টেলিভিশন জার্নালিষ্ট এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মেহেদী হাসান শ্যামল, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের ১৯ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন।

এ সময় গণধ্বনি প্রতিদিনের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন পত্রিকাটির প্রধান প্রতিবেদক মঈন উদ্দিন। পাঠকদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন, শিক্ষক নুর কুতুব। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, দৈনিক আমাদের রাজশাহীর সম্পাদক আফজাল হোসেন, দৈনিক নতুন প্রভাতের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সোহেল মাহবুব, উত্তরা প্রতিদিন সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, বাংলাদেশ টেলিভিশনের রাজশাহী প্রতিনিধি আজিজুর ইসলাম, ফটো সংবাদিক আসাদুজ্জামান আসাদ।

এ সময় বক্তারা বলেন, অষ্টম বর্ষে পর্দাপণ এই অভিযাত্রাটি কালের বিবেচনায় হয়তো দীর্ঘ পথ নয়। তবে গণমাধ্যমের জন্য এই পথ-পরিক্রমার সময়টি ছিল বেশ কঠিন। এ সময়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের অবাধ তথ্যপ্রবাহের দাপট, মহামারী করোনাভাইরাস পরবর্তী ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের প্রভাবে বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক মন্দার প্রভাবসহ নিউজপ্রিন্টের মতো মুদ্রণ উপকরণের দাম বাড়ার কারণে উৎপাদন খরচ বেড়ে যাওয়াসহ নানা প্রতিকূলতায় সংবাদপত্রকে কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়ে এসবের মোকাবেলা করেই গণধ্বনি প্রতিদিন পথচলা অব্যাহত রেখেছেন পত্রিকাটির প্রকাশক ও সম্পাদক ইয়াকুব শিকদার। এ সময় বক্তারা বলেন, সত্য প্রকাশের অঙ্গীকারকে এগিয়ে নিতে তিনি সক্ষম হয়েছে। তার সঙ্গে মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়েও পত্রিকাটি নিয়মিত প্রকাশিত হওয়ায় তারা সকলেই অভিনন্দন জানান।

সভাপতির বক্তব্য সম্পাদক ও প্রকশাক ইয়াকুব শিকদার পত্রিকাটির প্রতি আস্থা রাখায় পাঠকদের কৃতজ্ঞতা জানান, একই সাথে সকল সংবাদকর্মী, বিজ্ঞাপনদাতা ও শুভানুধ্যায়ীর প্রতিও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তিনি বলেন, দৈনিক গণধ্বনি প্রতিদিন ২০১৭ সালের ১ ফেব্রুয়ারি ডিক্লারেশন লাভ করে। এরপর একই বছরের ১৩ এপ্রিল আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে পত্রিকাটি। এরপর নিয়মিতভাবে প্রকাশিত হয়ে আসছে রাজশাহীর গণমানুষের প্রিয় পত্রিকা দৈনিক গণধ্বনি প্রতিদিন। পত্রিকাটি অল্প সময়ের ব্যবধানে পাঠকপ্রিয়তা অর্জনে ইতোমধ্যে সক্ষম হয়েছে। অন্যায় ও অসত্যের বিরুদ্ধে এবং বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশে পত্রিকাটির আপোষহীন ভূমিকা ও সকলের আন্তরিক সহযোগিতায় এই পাঠকপ্রিয়তা অর্জনের একমাত্র কারণ বলে আমি মনে করি। নানা প্রতিকুলতা সত্বেও শত বাধা অতিক্রম করে পত্রিকাটি তার অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে সক্ষম হয়েছি।

এর আগে রাজশাহী এডিটরস ফোরামের পক্ষ থেকে দৈনিক গণধ্বনি প্রতিদিন পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক ইয়াকুব শিকদারকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান রাজশাহী থেকে প্রকাশিত বিভিন্ন পত্রিকার সম্পাদকবৃন্দ। পরে পত্রিকার অষ্টম বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে কেক কেটে ও মধ্যাহ্নভোজের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ