গোমস্তাপুরে গাছের মালিকানা নিয়ে দুই সরকারি সংস্থার দ্বন্দ্ব, গাছ কাটা স্থগিত

আপডেট: এপ্রিল ২, ২০২৪, ৮:৪৯ অপরাহ্ণ


চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি:চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার রহনপুরে বিএডিসির সার গুদাম চত্বরের বিভিন্ন প্রজাতির গাছের মালিকানা নিয়ে দ্বন্দ্বে জড়িয়েছে দুটি সরকারি সংস্থা। তারা হলো বিএডিসি ও রেলওয়ে।

জানা গেছে, কৃষি মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন( বিএডিসি) রাজশাহীর যুগ্ম পরিচালক (সার) জুলফিকার আলি স্বাক্ষরিত গত ১৯ মার্চের এক অফিস আদেশে পাবনা জেলার সাথিয়া উপজেলার নবীরউদ্দিনের ছেলে আনোয়ার হোসেনকে রহনপুর বিএডিসি সার গুদাম চত্বরে সার সংরক্ষনাগার নির্মাণের লক্ষ্যে সেখানে অবস্থিত ২৯ টি বিভিন্ন প্রজাতির গাছ কর্তনের আদেশ দেয়া হয়। কার্যাদেশ পাওয়ার পর ওই ব্যক্তির কাছ থেকে সাব কন্টাক্ট নেওয়া রহনপুর পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শফিকুল ইসলাম-মুন্না গাছ কাটা শুরু করেন।

এদিকে, সোমবার বাংলাদেশ রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চলীয় জোনের প্রকৌশল বিভাগের উপসহকারী প্রকৌশলী আল আমীন বিশ্বাস সেখানে উপস্থিত শ্রমিকদের গাছ কাটা আপাতত স্থগিত রাখার নির্দেশ দেন। এ বিষয়ে তিনি জানান, রেলওয়ে, বিএডিসি কর্তৃপক্ষকে ১শো বছরের জন্য ওই জায়গা লীজ দিয়েছে। কিন্তু সেখানে থাকা গাছ-পালা লীজ বা কর্তনের অনুমতি দেয়া হয়নি। বিএডিসি কর্তৃপক্ষ রেলওয়ের সাথে কথা না বলেই রেলওয়ের জমিতে থাকা গাছপালা কর্তনের অনুমতি দিয়েছে। যা আমরা স্থগিত রাখার নির্দেশ দিয়েছি। এ বিষয়ে বিএডিসি, রাজশাহীর যুগ্ম পরিচালক ( সার) জুলফিকার আলী মুঠোফোনে জানান, যথাযথ প্রক্রিয়া মেনে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে গাছ কর্তনের অনুমতি দেয়া হয়েছে।

Exit mobile version