গাছে বেঁধে স্কুলছাত্র নির্যাতন মামলায় তিনজন কারাগারে

আপডেট: মার্চ ১৪, ২০১৭, ১২:২০ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


রাজশাহীর দুর্গাপুরে ছাগল চুরির অভিযোগে দশম শ্রেণির দুই ছাত্রকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় তিন আসামির জামিন আবেদন নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে এ মামলার অপর আসামি ঝালুকা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোজাহার আলীকে জামিনের আদেশ দেয়া হয়। গতকাল সোমবার দুপুরে রাজশাহীর অতিরিক্ত দায়রা জজ-২ আদালতে তারা আত্মসমর্পণ করলে বিচারক খন্দকার হায়দার আলী এ আদেশ দেন বলে জানান ওই আদালতের জিআরও আব্দুল ওহাব।
তিনি জানান, ইউপি চেয়ারম্যান মোজাহার আলী, আনারুল ইসলাম, আব্দুল হক ও রেজাউল ইসলাম আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে মোজাহার আলীর জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন আদালতের বিচারক। একইসঙ্গে অপর তিনজনের জামিন আবেদন খারিজ করে দিয়ে তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
প্রসঙ্গত, গত ৮ মার্চ দুর্গাপুর উপজেলার আন্দুয়া গ্রামে ছাগল চুরির অভিযোগে দশম শ্রেণির দুই ছাত্রকে গাছে বেঁধে নির্যাতন করা হয়। একইসঙ্গে সালিশ বসিয়ে তাদের পরিবারের কাছ থেকে ১৬ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা। এ ঘটনায় নির্য়াতনের শিকার এক স্কুলছাত্রের বাবা জিয়াউর রহমান বাদী হয়ে ইউপি চেয়ারম্যান মোজাহার আলী, ইউপি সদস্য আব্দুল লতিফ মির্জা ও আব্দুল মোতালেবসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর ইউপি সদস্য আব্দুল লতিফ মির্জা ও আব্দুল মোতালেবকে পুলিশ গ্রেফতার করে। গত রোববার তারা দুইজন আদালত থেকে জামিন পান।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ