গানপাউডার ও ককটেলসহ চার জামায়াত-শিবির গ্রেফতার

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৭, ১২:১৩ পূর্বাহ্ণ

শিবগঞ্জ প্রতিনিধি


চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ সীমান্তে চর এলাকায় একটি মাদ্রাসা মাঠে গত শুক্রবার রাতে গোপন বৈঠক চলাকালে গানপাউডার ও ককটেলসহ চার জামায়াত ও শিবিরকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।
আটককৃতরা হলেন শিবিরকর্মী উপজেলার মনাকষা ইউনিয়নের সাহাপাড়া গ্রামের আবদুস সালামের ছেলে তোসলিম উদ্দিন (৩৫) একই গ্রামের আবদুস কুদ্দুসের ছেলে গোলাম মোস্তফা (২৫) এবং জামায়াতকর্মী উপজেলার দূর্লভপুর ইউনিয়নের নামো জগনাথপুর গ্রামের মৃত শরিয়ত আলীর ছেলে খলিলুর রহমান (৬৫) ও একই গ্রামের ওয়াজেদ আলীর ছেলে গোলাম মোস্তফা (৪৫)।
শিবগঞ্জ থানার ওসি মো. রমজান আলী জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার রাতে এসআই গৌতম চন্দ্র মালী, এসঅঅই কামরুজ্জামানের নেতৃত্ব একদল পুলিশ দূর্লভপুর ইউনিয়নের চর নামোজগন্নাথপুর আনক কারিগরী দাখিল মাদ্রাসা মাঠে জামায়াত-শিবিরের গোপন বৈঠক চলাকালে অভিযান চালিয়ে এক কেজি গানপাউডার, পাঁচটি ককটেল এবং দশটি বাইসাইকেলসহ চার জামায়াত-শিবির কর্মীকে আটক করা হয়। তিনি আরো জানান, ওই সময় জামায়াত-শিবির কর্মীরা নাশকতা সৃষ্টির উদ্দেশ্যে গোপন বৈঠক করছিল। তবে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বাকীরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় গতকাল শনিবার দুপুরে শিবগঞ্জ থানায় একটি মামলা দিয়ে আটককৃতদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় কয়েকটি সূত্র জানায়, পুলিশ ২২টি বাইসাইকেল উদ্ধার করেছে। ওই স্থানে আরো কয়েকটি মোটরসাইকেল ছিল পরে জামায়াত-শিবির কর্মীদের সমর্থকরা নিয়ে গেছে। সভায় জামায়াত- শিবির কর্মীরা বিশেষ করে চরাঞ্চলে অবস্থান করে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে নাশকতার সৃষ্টির পরিকল্পনা তৈরী করছিল। তবে এসআই গৌতম ২২টি বাইসাইকেলের কথা অস্বীকার করে বলেন, ১০টি বাইসাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে।