গায়ক আসিফের ওপরে যারপরনাই ক্ষুব্ধ মুশফিক

আপডেট: নভেম্বর ২৯, ২০১৬, ১১:১৪ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



ক্ষেপেছেন মুশফিকুর রহীম। বরিশাল বুলস অধিনায়ক রেগে অগ্নিশর্মা। তার যত রাগ-ক্ষোভ সঙ্গিত শিল্পী আসিফ আকবরের ওপর। প্রসঙ্গত জনপ্রিয় গায়ক আসিফ আকবর এবার বরিশাল বুলসের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর; কিন্তু নিজ দলের পারফরম্যান্সে চরম হতাশ তিনি।
প্রিয় দলের ব্যর্থতায় আসিফ ফেসবুকে লিখতে গিয়ে একপর্যায়ে মুশফিকুর রহিমের দল বরিশাল বুলসের বিরুদ্ধে বিপিএলে ম্যাচ পাতানোর অভিযোগ তুলে দিয়েছেন। বরিশাল বুলসের পারফরম্যান্সে হতাশ হয়ে ২৪ ঘণ্টা আগে আসিফ তার ফেসবুকে লিখেছেন, ‘অন্য কোন দলের কথা বলবো না। আমার দল বরিশাল বুলসের বিদেশি এবং দেশি খেলোয়াড়দের একটা অংশ ম্যাচ ফিক্সিংয়ে জড়িত, আমি নিশ্চিত, প্রমাণ নেই। তবে বিসিবি এবং আকসু যদি তীক্ষ্ম দৃষ্টি দেয় তাহলে অবশ্যই তারা প্রমাণ খুঁজে পাবেন, আমার বিশ্বাস।’
আসিফ আকবরের স্ট্যাটাসে ইতোমধ্যেই ফেসবুকে তোলপাড়। তার মতো একজন দেশবরেণ্য সেলিব্রিটির এমন লিখনিতে বিপিএল নিয়ে নতুন করে জেগেছে প্রশ্ন। ফেসবুকে অনেকেরই কৌতূহলী প্রশ্ন, বিপিএলে কি সত্যিই এমন ম্যাচ ফিক্সিং হয়?
এদিকে টানা ছয় ম্যাচ হারা বুলস অধিনায়ক মুশফিক ওই অভিযোগকে অসার, ভিত্তিহীন ও অবান্তর আখ্যা দিয়েছেন। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আনুষ্ঠানিক প্রেস কনফারেন্সে বরিশাল বুলস অধিনায়ক মুশফিক বলেন, ‘কি আর বলব? শোনার পর এবং চোখে দেখার পর নিজের চোখকে বিশ্বাস করতে পারছিলাম না। উনি (আসিফ আকবর) আমাদের দেশের সেলিব্রিটি এবং শিক্ষিত একজন মানুষ। তার মুখ থেকে এমন কথা আসবে বা তিনি এমন কিছু লিখবেন- এটা বিরক্তিকর ও লজ্জাজনক।’
মুশফিকের দাবি, ক্রিকেট শুধু খেলাই নয়। তার মতো অন্য ক্রিকেটারদের রুটি-রুজিও। কাজেই তাদের দলের সঙ্গে বেঈমানি করার প্রশ্নই আসে না, ‘খেলোয়াড় হিসেবে আমি যে দলেই খেলি না কেন, এই দলেও আমরা দেশি-বিদেশি সবাই এত কষ্ট করে খেলছেন। এত পেশাদারিত্ব। এটাই আমাদের রুটি-রোজগার। এটার সঙ্গে যদি কেউ বেঈমানি করে, এর চেয়ে বড় কিছু আর হতে পারে না। উনি যেটা লিখেছেন, খুব কষ্ট লাগছে।’
রাগে ক্ষোভে ফুঁসতে থাকা মুশফিক আসিফ আকবরের সুস্থতা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন। তার পাল্টা প্রশ্ন উনি (আসিফ আকবর) এটা মাথা ঠিক অবস্থায় লিখেছেন নাকি বেঠিক অবস্থায়, নিজেও জানি না, ‘উনাকে আমার প্রশ্ন করতে ইচ্ছে করছে। সামনে পেলে প্রশ্ন করব, কোন পরিস্থিতি দেখে আপনার মনে হয়েছে বা কোন দেশি বা বিদেশি খেলোয়াড় জড়িত? উনি লিখেছেন যে উনি নিশ্চিত, কিন্তু প্রমাণ নেই। এটা কোন ধরনের ভাষা! এটাই বলে দেয় উনি কোন সেন্সে ছিলেন।’
মুশফিকের শেষ কথা, ‘জানি তারও (আসিফ আকবরের) খেলার প্রতি অন্যরকম আকর্ষন ও ভালোবাসা আছে। তিনি ক্রিকেটের সঙ্গে অনেকভাবে জড়িতও ছিলেন। সে কারণেই তার হতাশা বেশি। এমন লোকের কাছ থেকে এরকম অভিযোগ আসা হতাশাজনক। উনি বলতে পারতেন যে আমাদের খেলায় তিনি আপসেট। সেটা হতেই পারে। উনি কেন, বরিশালবাসী সবাই আপসেট। ভালো করতে পারছি না, এটা অন্য কথা; কিন্তু উনি যেভাবে লিখেছেন, পাগল ছাড়া একজন মানুষের পক্ষে এটা লেখা সম্ভব না।’-জাগোনিউজ