গুজরাটের গারবা ইউনেস্কোর স্বীকৃতি পাওয়ায় সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা

আপডেট: ডিসেম্বর ৭, ২০২৩, ১০:২৫ অপরাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক:


ভারতের গুজরাটের ঐতিহ্যবাহী লোকনৃত্য গারবা ইউনেস্কোর স্বীকৃতি পেয়েছে। গারবা সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য হিসেবে মনোনীত হওয়া রাজশাহীস্থ সহকারি ভারতীয় হাই কমিশনারের উদ্যোগে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) বিকেলে হাই কমিশন প্রাঙ্গনে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্বলনের মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে সাংস্কৃতিক পর্বে অংশ নেন রাজশাহীর শিল্পীরা।

ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার মনোজ কুমার গারবা লোকনৃত্য ঐতিহ্য তুলে ধরে বলেন, গারবা হল জীবন, ঐক্য এবং আমাদের মূল সংস্কৃতির উদযাপন। হেরিটেজ লিস্টে এর অন্তর্ভুক্তি হওয়ায় এবার বিশ্বের কাছে ভারতীয় তথা এই উপমহাদেশের সংস্কৃতির সৌন্দর্য প্রদর্শিত হবে। এই সম্মান আমাদের ঐতিহ্য সংরক্ষণ ও প্রচার করতে ভবিষ্যত প্রজন্মকে অনুপ্রাণিত করে। গারবার বিশ্বব্যাপী এই স্বীকৃতি আমাদের সকলের জন্য গৌরবের।

তিনি বলেন,ভারত-বাংলাদেশ ঐতিহাসিক সম্পর্ক শুধু কূটনৈতিক, রাজনৈতিক আর অর্থনৈতিক নয়- আমাদের দুই দেশের সম্পর্ক হচ্ছে আত্মিক, পারস্পরিক সমতা ও ন্যায্যতার। ভারত সবসময় বাংলাদেশের শান্তিপ্রিয় ও সম্প্রীতিপ্রিয় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল, নর্থ বেঙ্গল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. বিধান চন্দ্র দাস, রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার বিজয় বসাক, বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপউপাচার্য প্রফেসর ড. আনন্দ কুমার সাহা, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য আনিকা ফারিহা জানান অর্ণা।