গুমনামি বাবাই নেতাজি, মত সংখ্যাগরিষ্ঠের, রাজ্যপালকে রিপোর্ট দিল কমিশন

আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৭, ১২:০২ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


ফরিদাবাদের গুমনামি বাবাই নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু। তাইহোকু বিমান দুর্ঘটনার পরেও বেঁচে ছিলেন তিনি। উত্তর প্রদেশের রাজ্যপাল রাম নাইকের কাছে এমন রিপোর্টই দিল বিচারপতি বিষ্ণু সহায়ের কমিশন। কমিশনের দাবি, সাক্ষীদের অধিকাংশই জানিয়েছেন, গুমনামি বাবা আসলে সুভাষ চন্দ্র বসু।
গুমনামি বাবাই নেতাজি বলে দাবি করে এলাহাবাদ হাইকোর্টে একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয়। সেই মামলায় এলাহাবাদ হাইকোর্টের নির্দেশে গত বছর জুনে সহায় কমিটি গঠন করেছিল উত্তর প্রদেশের অখিলেশ সরকার। সেই কমিশনের সাক্ষে অধিকাংশ ব্যক্তিই জানিয়েছেন গুমনামি বাবাই নেতাজি। কেউ কেউ গুমনামি বাবা নেতাজি হয়ে থাকতে পারেন বলে মত প্রকাশ করেছেন। কিছু সাক্ষী অবশ্য খারিজ করে দিয়েছেন এই সম্ভাবনা। বৃহস্পতিবারই উত্তর প্রদেশের রাজ্যপালের কাছে এই রিপোর্ট পেশ করেন বিচারপতি সহায়।
টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে এক সাক্ষাৎকারে বিচারপতি সহায় জানিয়েছেন, গুমনামি বাবার মৃত্যুর পর অতিবাহিত দীর্ঘ সময় তদন্তপ্রক্রিয়াকে আরও জটিল করে তুলেছে। ১৯৮৫ সালে মৃত্যু হয়েছিল তাঁর।
তথ্যসূত্র: ২৪ঘণ্টাডটকম