গুরুদাসপুরে নগদ টাকাসহ বিনামুল্যের আমন ধান ও পেঁয়াজ বীজ – রাসায়নিক সার বিতরন উদ্বোধন

আপডেট: জুলাই ১, ২০২২, ৫:৪৩ অপরাহ্ণ


আবুল কালাম আজাদ :


নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলায় খরিপ- ২ মৌসুমে উতপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে কৃষকদের মাঝে উফসি জাতের রোপা আমন ধানের বীজ ,গ্রীস্মকালিন পেঁয়াজের বীজ এবং নগদ টাকা বিতরণ কর্মসুচির উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি নাটোর -৪ (গুরুদাসপুর-বড়াইগ্রাম) এর সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. তমাল হোসেনের সভাপতিত্বে বৃহস্পতিবার ( ৩০ জুন) সকাল সাড়ে ১০ টায় উপজেলা কৃষি স¤প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে এবং উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত বিনামূল্যে বীজ,সার ও নগদ টাকা বিতরণ কর্মসুচির উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন,

উপজালা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন, পৌর মেয়র মো. শাহনেওয়াজ আলী, ভাইস চেয়ারম্যান মো. আলাল শেখ এবং কৃষি অফিসার মো. হারুনর রশিদ।

উপজেলা কৃষি অফিসার হারুনর রশিদ এবং কৃষি স¤প্রসারণ অফিসার মতিয়ার রহমান জানান, চলতি খরিপ-২ মৌসুমে উতপাদন বৃদ্ধির লক্ষে উপজেলার নাজিরপুর ৮৫,বিয়াঘাট ৭০, খুবজিপুর ৬০, মশিন্দা ৭০, ধারাবারিষা ৭০ এবং চাপিলা ইউনিয়নে ৮৫ ও পৌর সভায় ৬০ জনসহ মোট ৫০০ জন কৃষককে প্রত্যেক কৃষককে একবিঘা পরিমান জমির জন্য ৫ কেজি করে উফশী জাতের (বিনা -২০ ও ব্রি ধান -৭৫) রোপা আমন ধানের ৫ কেজি করে ২ হাজার ৫০০ কেজি ভিত্তি বীজ ও ১০ কেজি করে ৫ হাজার কেজি ডিএপি,

১০ কেজি করে ৫ হাজার কেজি এমওপি রাসায়নিক সার বিতরন করা হবে। যার আর্থিক মুল্য ২ লাখ ৯৫ হাজার টাকা।
এছাড়া গ্রীষ্মকালিন মৌসুমে পেঁয়াজের উতপাদন বৃদ্ধির লক্ষে উপজেলার নাজিরপুর ৩, বিয়াঘাট ১০, খুবজিপুর ৯, মশিন্দা ৯,

ধারাবারিষা ৯ এবং চাপিলা ইউনিয়নে ১০ ও পৌরসভায় ১০ জনসহ মোট ৬০ জন কৃষককে প্রত্যেককে ১ কেজি করে ৬০ কেজি পেঁয়াজের বীজ,২০ কেজি করে ১২ শ কেজি ডিএপি এবং ২০ কেজি করে ১২ শ কেজি এমওপি সার ।

যার আর্থিক মূল্য ১ লাখ ৯ হাজার ২ শ টাকা ও ২ হাজার ৮ শ টাকা করে ১ লাখ ৬৮ হাজার নগদ টাকা ( বিকাশ-এর মাধ্যমে) বিতরণ করা হবে। এছাড়া পেঁয়াজের বীজতলা ঢেকে দেয়ার জন্য পলিথিন এবং দড়ি বিতরণ করা হবে। বীজতলায় চারা তৈরি, জমিতে রোপন এবং পরিচর্যা বিষয়ে কৃষকদেরকে দক্ষতা উন্নয়নে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে।