গুরুদাসপুরে যুবককে কুপিয়ে হত্যা || পরিবার জুড়ে শোকের মাতম

আপডেট: আগস্ট ২২, ২০১৭, ১:৩৬ পূর্বাহ্ণ

গুরুদাসপুর প্রতিনিধি


নাটোরের গুরুদাসপুরে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আশিক শেখ (২৪) নামে এক যুবককে বাড়িতে ডেকে নিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষ। গত রোববার রাত ১০টার দিকে পৌরসভার চাঁচকৈড় টলটলিপাড়া মহল্লায় ওই হত্যাকা-ের ঘটনা ঘটে।  নিহত আশিক শেখ চাঁচকৈড় কাচারীপাড়া মহল্লার নজরুল শেখের ছেলে ও গুরুদাসপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান উপজেলা যুবলীগের সভাপতি  আলাল শেখের ভাতিজা। হত্যাকা-ের ঘটনায় গতকাল সোমবার দুপুরে নিহত আশিকের বাবা নজরুল শেখ বাদি হয়ে গুরুদাসপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় আশিক শেখের বন্ধু আশিকুর রহমান ওরফে অলি (২৪) অলির বাবা জালাল উদ্দিন মন্ডল (৫২), মা আলেয়া বেগম (৪২) ও স্ত্রী রিয়া খাতুনকে (২০) আসামি করা হয়েছে। গতকাল বিকেল পর্যন্ত এ ঘটনায় কেউ গ্রেফতার হয় নি। নিহতের পরিবার ও থানা সূত্রে জানা গেছে, প্রতিপক্ষ অলির সাথে নিহত আশিক শেখের মধ্যে আর্থিক লেনদেন ছিল। গত রোববার রাতে টাকা দেয়ার কথা বলে আশিককে তাদের বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায় অলি। কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে অলি ও তার পরিবারের লোকজন হাসুয়া দিয়ে নৃসংশভাবে কুপিয়ে হত্যা করে আশিককে। গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক কামরুল ইসলাম জানান, আশিকের গলা ও হাতে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপানো হয়। তিনি আরো জানান, মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয় আশিককে । গতকাল সোমবার সকালে লাশ নাটোর মর্গে পাঠানো হয়। আশিকের বাবা নজরুল ইসলাম জানান, তার ছেলে ইলেকট্রিক মেকানিক। অলির সাথে আশিকের বন্ধুত্ব থাকায় ৩০ হাজার টাকা ধার নেয় অলি। টাকার বিষয় নিয়ে দীর্ঘদিন টানাপোড়েন চলছিল তাদের মধ্যে। গত রোববার রাত ৯টার দিকে টাকা দেয়ার কথা বলে অলি তাদের বাড়িতে ডেকে নেয় আশিককে। পরে পরিবারের সদস্যরা মিলে তার ছেলে আশিককে কুপিয়ে হত্যা করে। তিনি ছেলের হত্যাকারীদের কঠোর শাস্তি দাবি করেন। এদিকে গতকাল সোমবার বেলা ১১টার দিকে আশিক শেখের বাড়িতে গিয়ে দেখা গেছে, আশিকের মা আনজুয়ারা বেগম ছেলের শোকে জ্ঞান হারিয়ে পড়ে আছেন। বাড়ি জুড়ে শোকের মাতম। বাবা নজরুল শেখ হতবিহ্বল, সাত মাসের মেয়ে নুছাইবাকে নিয়ে আশিকের স্ত্রী আখিঁ বিলাপ করছেন। আসামিদের বাড়িতে গিয়ে দেখা গেছে, ছোপছোপ রক্ত পড়ে রয়েছে উঠান-বারান্দায়। আলামত রক্ষা ও  বাড়ির নিরাপত্তায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।  গুরুদাসপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিলীপ কুমার দাস ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আসামিদের প্রযুক্তিগত সহায়তায় গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। থানা সূত্রে জানা গেছে, আসামি অলি ও তার বাবা এলাকার চিহ্নত মাদক ব্যবসায়ী। কয়েক দফা তারা জেলও খেটেছেন। তাছাড়া অলির বিরুদ্ধে নারী নির্যাতনসহ সামাজিক অবক্ষয় মূলক নানা অভিযোগও রয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ