গুরুদাসপুরে স্কুলছাত্রী ধর্ষণ, পালিয়ে বেড়াচ্ছে ধর্ষক

আপডেট: জানুয়ারি ৩১, ২০২২, ১:৪১ অপরাহ্ণ

গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি :


নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার চাপিলা ইউনিয়নের বৃ-চাপিলা গ্রামে নবম শ্রেণির এক ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। ওই স্কুলছাত্রী বর্তমানে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গুরুতর অসুস্থ হয়ে ভর্তি আছেন।

এ ঘটনায় রোববার মেয়েটির মা অভিযুক্তের বিরুদ্ধে থানায় বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেছেন।
জানা যায়, শনিবার (২৯ জানুয়ারী) রাত সাড়ে ১২টার দিকে প্রেমেরে সর্ম্পকে অভিযুক্ত মেহেদী হাসান মোবাইল ফোনে মেয়েটিকে বাড়ির বাইরে আসতে বলেন।

মেয়েটি বাইরে আসলে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে পাশের বাঁশ বাগানে মেয়েটিকে জোরর্পূবক ধর্ষণ করে সু-কৌশলে ছেলেটি পালিয়ে যায়। এসময় মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন

। এ ঘটনায় ছেলেটির পরিবার বার বার মিমাংসার চেষ্টাও করে ব্যর্থ হয়। বৃ-চাপিলা গ্রামের মো. আব্দুর রহিম শেখের ছেলে ধর্ষক মেহেদী হাসান (২২) এখনও পলাতক রয়েছে।

গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল মতিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মামলার প্রেক্ষিতে অভিযুক্ত আসামীকে গ্রেফতারের জোর তৎপরতা চলছে।