গৃহযুদ্ধ অবসানের পথে বিশাল পদক্ষেপ হবে আলেপ্পোর জয়: আসাদ

আপডেট: ডিসেম্বর ৯, ২০১৬, ১২:০১ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



আলেপ্পোতে সিরিয়ার সেনাবাহিনী জয়ী হলে তা দেশটির পাঁচ বছরের গৃহযুদ্ধ অবসানের ক্ষেত্রে ‘বিশাল পদক্ষেপ’ হবে বলে মনে করেন সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ।
তবে উত্তরাঞ্চলীয় এই শহরটিতে বিদ্রোহীদের পরাজয় মানেই গৃহযুদ্ধের অবসান নয় বলেও স্পষ্ট করেছেন তিনি।
বিদ্রোহীরা আলেপ্পোতে তাদের শেষ শক্তিকেন্দ্র পুরানো শহর থেকে সরে যাওয়ার পর বেসামরিক নাগরিকদের চলে যাওয়ার সুযোগ দিতে পাঁচ দিনের যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানিয়েছে। কিন্তু যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছেন প্রেসিডেন্ট আসাদ। তার অনুগত সেনাবাহিনীও আক্রমণ অব্যাহত রেখেছে।
যুক্তরাষ্ট্রসহ পাঁচ পশ্চিমা শক্তি (যুক্তরাজ্য, জার্মানি, ইতালি, ফ্রান্স ও কানাডা) তাৎক্ষণিক যুদ্ধবিরতির ডাক দেওয়া সত্বেও কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে বিবিসি।
সিরিয়ার আল ওয়াতান সংবাদপত্রকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রেসিডেন্ট আসাদ বলেছেন, “এটা ঠিক আলেপ্পোতে আমরা জয় পেতে যাচ্ছি। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে, এই জয়েই সিরিয়ার যুদ্ধের অবসান ঘটছে না, তবে সেই পথে একটি বড় পদক্ষেপ এটি।
“সন্ত্রাসীরা অন্যান্য জায়গায় এখনও তৎপর। আলেপ্পোর কাজ শেষ হলেও আমাদের যুদ্ধ চালিয়ে যেতে হবে।”
আলেপ্পো থেকে বিবিসির প্রতিনিধি জানিয়েছেন, অভাবনীয় দ্রুততায় পূর্ব আলেপ্পোর বিদ্রোহী-নিয়ন্ত্রিত এলাকাগুলোর পতন ঘটছে।
মঙ্গলবার বিদ্রোহী-নিয়ন্ত্রিত আল শায়ার এলাকার পতন ঘটে, এতে বিদ্রোহী-নিয়ন্ত্রিত পুরানো শহরে আক্রমণের সুযোগ পায় সেনাবাহিনী। পুরো এলাকটির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, লড়াই থেকে ওঠা ধোঁয়ায় পরের দিনও ওই এলাকার আকাশ ছেয়ে ছিল।
পুরানো শহর থেকে বিদ্রোহীদের সরে যাওয়ার সুযোগ দিতে দুপক্ষের মধ্যে একটি সমঝোতা হয়েছে বলেও খবর পাওয়া গেছে। কিন্তু আল কায়েদার সঙ্গে সম্পর্কিত নুসরা ফ্রন্টের অনমনীয় যোদ্ধারা শেষ পর্যন্ত লড়াই করার অঙ্গীকার করে বিদ্রোহী-নিয়ন্ত্রিত অবশিষ্ট অংশটিতে রয়ে গেছেন।
সিরিয়ার সেনাবাহিনী এবং তাদের রুশ ও ইরানি মিত্ররা যুদ্ধবিরতির আহ্বানের কোনো তোয়াক্কা করছে না, এমনকি মানবিক কারণে কোনো করিডর খোলার প্রস্তাবেও সায় দিচ্ছে না। সোমবার রাশিয়ার ফিল্ড হাসপাতালে বিদ্রোহীরা মর্টার হামলা চলিয়েছিল। এর প্রতিক্রিয়ায় আলেপ্পোর লড়াই দ্রুত শেষ করার বিষয়ে মস্কো শক্ত অবস্থান নিয়েছে বলে জানা গেছে।
গত চার বছর ধরে বিদ্রোহীদের দখলে থাকা পূর্ব আলেপ্পোর ৭৫ শতাংশ গত ১৭ দিনে পুনরুদ্ধার করেছে সরকারি বাহিনী।- বিডিনিউজ