গৃহায়ণের প্রকৌশলী পরিমলের বিরুদ্ধে দুদকের মানিলন্ডারিং মামলা

আপডেট: জুন ৬, ২০২২, ১০:৩৯ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:


অসঙ্গতিপূর্ণ ৫০ লাখ ৪৩ হাজার ৫১৬ টাকা মূল্যের সম্পদের মালিকানা অর্জন করার অপরাধে জাতীয় গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষের রাজশাহী সার্কেলের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী পরিমল কুমার কুরীর (৫৮) নামে মামলা দায়ের করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

দুদকের রাজশাহী সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক (এডি) আমির হোসাইন বাদী হয়ে সোমবার (৬ জুন) দুপুরে রাজশাহী মহানগর দায়রা জজ আদালত এ মামলাটি দায়ের করেন। একই অপরাধে পরিমলের স্ত্রী সোমা সাহার নামেও পৃথক মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছে দুদক।

দুদকের রাজশাহী সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আমির হোসাইন জানান, আসামি পরিমল কুমার কুরী জাতীয় গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষ রাজশাহী সার্কেলের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী। তিনি ঝিনাইদহ জেলার কালীগঞ্জ থানার বেলাট গ্রামের মৃত পশুপতি কুরীর ছেলে। বর্তমান ঢাকার মিরপুর-২ এলাকার ১ নম্বর রোডের (নম্বর-১, ব্লক জি/১) অফিসার্স কোয়ার্টারে (নম্বর-০৩/১) থাকেন।

তার নামে অভিযোগ ওঠার পর এ ঘটনায় তদন্ত শেষ করে দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়। পরে দুর্নীতি দমন কমিশন আইন ২০০৪-এর ২৬ (১) ধারায় পরিমল কুমার কুরীরকে তার নামে থাকা সম্পদ বিবরণী নোটিশ জারির সুপারিশ করে প্রতিবেদন দাখিল করা হয়।

এরপর দুর্নীতি দমন কমিশনের আদেশে বর্তমান আসামি পরিমল কুমার কুরী তার সম্পদ বিবরণী দাখিল করেন। তদন্ত কর্মকর্তা হিসেবে তিনি তা যাচাই করেন। পরে অসঙ্গতি থাকায় তার নামে মামলা দায়েরের সুপারিশ করে প্রতিবেদন দাখিল করেন।

সহকারী পরিচালক আমির হোসাইন বলেন, আসামি পরিমল কুমার কুরী দুর্নীতি দমন কমিশনে দাখিলকৃত সম্পদ বিবরণীতে ৩৬ লাখ ১২ হাজার ৬৭৯ টাকা মূল্যের সম্পদের তথ্য অসদ উদ্দেশে গোপন করে মিথ্যা তথ্য দেন। এ সম্পদের তথ্য গোপন ও অবৈধভাবে জ্ঞাত আয়ের উৎসের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ ৫০ লাখ ৪৩ হাজার ৫১৬ টাকা মূল্যের সম্পদের মালিকানা অর্জন করার অপরাধ করেছেন।

অপরাধলব্ধ আয়ের এ পরিমাণ টাকার অবৈধ উৎস, প্রকৃতি, অবস্থান, মালিকানা ও নিয়ন্ত্রণ, উৎস গোপন করতে এরই মধ্যে তার মালিকানা স্থানান্তর, রূপান্তর ও হস্তান্তর করেছেন। এর দায়ে তার নামে দুর্নীতি দমন কমিশন আইন ২০০৪-এর ২৬ (২) ও ২৭ (১) ধারায় এবং মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইন ২০১২ এর ৪ (২) ও ৪ (৩) ধারায় কমিশনের অনুমোদনক্রমে দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত জেলা কার্যালয় মামলাটি করেছে।

রাজশাহী মহানগর দায়রা জজ আদালত দুদকের এ মামলাটি আমলে নিয়েছেন। এখন সেখান থেকে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। একই অপরাধে পরিমল কুমার কুরীর স্ত্রী সোমা সাহার নামেও পৃথক মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানিয়েছেন এ দুদক কর্মকর্তা।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ