গোদাগাড়ীতে আদিবাসী নারী ধর্ষণের চেষ্টা ও মারপিটের ঘটনায় তিনজন গ্রেফতার

আপডেট: আগস্ট ১১, ২০২০, ১০:২১ অপরাহ্ণ

গোদাগাড়ী প্রতিনিধি


রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে আদিবাসী নারী ধর্ষণের চেষ্টা ও মারপিটের ঘটনায় তিনজন গ্রেফতার হয়েছে। গ্রেফতারকৃত হলো, ইটহারী গ্রামের জহুরুল ইসলামের ছেলে আব্দুল জাব্বার, জালারউদ্দীনের ছেলে সেন্টু (৪০) ও পাহাড়পুর গ্রামের আনিকুল(২৪)।
স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত শনিবার (৮আগস্ট) উপজেলার গোগ্রাম ইউনিয়নের ইটাহারি গ্রামে এক আদিবাসী নারীকে ধর্ষণের চেষ্টা জহুরুল ইসলাম (৪৫) নামে এক ব্যক্তি। ওই নারীর চিৎকারে লোকজন এসে জহুরুল ইসলামকে হাতে নাতে ধোলাই দিয়ে আটকে রাখে।এরপর জহুরুল ইসলামের জাব্বার(২২) দলবল নিয়ে আদিবাসী উপর হামলা চালিয়ে জহুরুল ইসলামকে ছিনিয়ে যায়। এতে করে রিতা রানী মুরারী (২০) মতিলাল মুরারী(২২) আহত অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স (প্রেমতলী হাসপাতাল) ভর্তি করে। এ ঘটনায় সোমবার দিবাগত রাতে গোদাগাড়ী মডেল থানায় পাঁচজন আসামি করে মামলা দায়ের হয়।
গোদাগাড়ী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খাইরুল ইসলাম বলেন, মঙ্গলবার গ্রেফতারকৃত তিনজনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। মামলার অপর দুই আসামি জহুরুল ইসলাম ও মইনুদ্দীন পলাতক রয়েছে। তাদেরকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।