গোদাগাড়ীতে এক নারীর রহস্যজনক মৃত্যু

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২১, ৯:১৮ অপরাহ্ণ

গোদাাগড়ী প্রতিনিধি:


রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে এক নারীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। নিহত নারী হলেন সাবেরা বেগম। ২৬ জানুয়ারি তার মৃত্যু হয়। এনিয়ে আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে।
গোদাগাড়ী উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের যৌবন লাইনপাড়া গ্রামের গোলাম রাব্বনীর স্ত্রী ও নিহতের মেয়ে ফুলেরা বেগম অভিযোগ করেন, তার বাড়িতে মা সাবেরা বেগম (৭০) বসবাস করতো। কিন্তু ২০২০ সালে ডিসেম্বর মাসে সাবেরা বেগমকে তার ভাই ইসমাইল হোসেন তার বাড়িতে নিয়ে যায়। আর জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে ফুলেরার স্বামী গোলাম রাব্বানী সঙ্গে ইসমাইলের বিরোধ রয়েছে। এই নিয়ে ২৭ জানুয়ারি আপোস মিমাংসার হওয়ার কথা ছিল।
ফুলেরা বেগম অভিযোগ করেন, আপোস মিমাংসার আগের দিন ২৬ জানুয়ারি তার মা সাবেরা বেগমের মৃত্যু হয় ইসমাইল এর বাড়ীতে। তিনি অভিযোগ করেন তার মাকে হত্যা করা হয়েছে। তবে যৌবন লাইন পাড়া গ্রামের মনিরুদ্দীনের ছেলে ইসমাইল বলেন,তার বোন সাবেরা বেগম অসুস্থ হলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।
ফুলেরার স্বামী গোলাম রাব্বনী বলেন, সাবেরা বেগমের মৃত্যুর খবর তার একমাত্র মেয়েকে না জানিয়ে ২৬ জানুয়ারি রাত ১১ টার দিকে তড়িঘড়ি করে দাফন করে। এতে করে তাদের সন্দেহ হয় সাবেরা বেগমকে হত্যা করা হয়েছে।
গোদাগাড়ী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খলিলুর রহমান পাটোয়ারী বলেন, সাবেরা বেগমের মৃত্যুর খবর জানা নেই। অভিযোগ পাওয়া গেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। সাবেরা বেগমের স্বামী ফাইজুদ্দীন তাকে ডিভোর্স দিলে একমাত্র কন্যাকে নিয়ে বসবাস করছিল। সাবেরা বেগমের একবিঘা জমি চাষ করে আসছে তার জামাই গোলাম রাব্বানী। সাবেরার জমিতে অংশ পাবে বলে দখলের চেষ্টা করে ইসমাইল। এই নিয়ে গোলাম রাব্বনী বাদী চারটি মামলার দায়ের করে রাজশাহীর আদালতে। চারটি মামলায় আসামি রয়েছে ই্সমাইল ও তার ভাতিজা জিয়া।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ