গোদাগাড়ীতে কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা

আপডেট: জুন ৮, ২০২০, ১:৫৬ অপরাহ্ণ

গোদাগাড়ী প্রতিনিধি :


রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে এক কলেজ ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সোমবার (০৮ জুন) সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে গোদাগাড়ী পৌর এলাকার বারুইপাড়া গ্রামের গোলাম মোর্ত্তজা লাড়র মেয়ে আঁখি খাতুন (১৮) শয়ন কক্ষে তীরের সঙ্গে ওড়না বেঁধে ফাঁস লাগিয়ে ঝুলতে থাকে। তার মা বাড়িতে এসে মেয়েকে ঝুলতে দেখে চিৎকার দিলে স্থানীয় লোকজন আঁখিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পথে মৃত্যু হয়। আঁখির পিতা অভিযোগ করেন, ২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসের শেষের দিকে আঁখি বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়ে তানোর উপজেলার কালিগঞ্জ হাট গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে ফজলে রাব্বী (২০) কে বিয়ে করে। গত ৩ জুন ফজলে রাব্বীর মা আঁখিকে তার পিতার বাড়িতে রেখে যায়। কিন্তু আঁখির সঙ্গে তার স্বামী ফজলে রাব্বী যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। এক পর্যায়ে আঁখি তার স্বামীর সঙ্গে যোগাযোগ করলে বিয়ের বিষয়টি অস্বীকার করে। এতে করে আঁখি আত্মহত্যার পথ বেছে নেয় বলে তার পরিবার অভিযোগ করেন।
গোদাগাড়ী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খাইরুল ইসলাম বলেন, লাশ ময়না তদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (রামেক) ফরেনসিক বিভাগে পাঠানো হয়েছে। আঁখির স্বামী ফজলে রাব্বীকে আটক করতে চেষ্টা চলছে। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। নিহত আঁখি গোদাগাড়ী মহিলা ডিগ্রি কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিলেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ