গোদাগাড়ীতে ছাত্রী ধর্ষণের প্রতিবাদে মানববন্ধন

আপডেট: জানুয়ারি ১০, ২০২০, ১২:২১ পূর্বাহ্ণ

গোদাগাড়ী প্রতিনিধি


গোদাগাড়ীতে মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীরা সোনার দেশ

রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে কাউন্সিলের বাড়িতে ছাত্রীকে দলগতধর্ষণের প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় উপজেলা সদর ডাইংপাড়া ফিরোজ চত্বরে গোদাগাড়ী নাগরিক কমিটি আয়োজিত মানববন্ধনে মুক্তিযোদ্ধা, শিক্ষক, সাংবাদিক, ছাত্র ও সুশীল সমাজসহ বিভিন্ন পেশার মানুষ অংশ নিয়ে ধর্ষণের সঙ্গে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন।
নাগরিক কমিটির সভাপতি অধ্যাপক শান্তকুমার মজুমদার রাখু বাবুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আলমগীর কবির তোতার সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন, আওয়ামী লীগ নেতা আবদুর রউফ করিম, পৌর প্রেসক্লাব সভাপতি শহিদুল ইসলাম, উপজেলা প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক জামিল আহমেদ, সনাতন ধর্মীয় নেতা ভবিরত পান্ডে, যুবনেতা তরিকুল ইসলাম, ছাত্র নেতা আব্বাস আলী, কৃষক হাজিকুল ইসলাম, সাদিকুল ইসলাম প্রমুখ। এসময় বক্তারা বলেন, গত মঙ্গলবার(৭জানুয়ারি) গোদাগাড়ী পৌরসভার ৬ ওয়ার্ড কাউন্সিলর শহিদুল ইসলামের শ্রীমন্তপুরস্থ বাড়িতে নবম শ্রেণির ছাত্রীকে দলগতধর্ষণের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছি। সেই সঙ্গে দোষিদের বিচারের মাধ্যমে শাস্তি দিতে হবে।
প্রসঙ্গত ধর্ষণের ঘটনায় ছাত্রীর মা বাদী হয়ে গোদাগাড়ী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। পুলিশ মামলার আসামী ও শহিদুল ইসলাম কাউন্সিলরের ছেলে উসমান গণি নুর(১৬) খন্দকার মো. ওবাইদুল হককের ছেলে রিদুয়ার আলী খন্দকার (১৬), জোৎগোসাইদাস এলাকার মোস্তফার ছেলে তারেক (১৭)। অভিযুক্তরা গোদাগাড়ী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের ছাত্র।
এ প্রসঙ্গে কলেজের অধ্যক্ষ মইনুল ইসলাম বলেন, জড়িত ছাত্রদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণিত হলে ছাত্রত্ব বাতিল করা হবে। এদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে রাজশাহী মেডিকেল কলেজে ও হাসপাতালে ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মেডিকেল পরীক্ষা করা শেষ হয়েছে। মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা আবদুল খালেক বলেন, মেডিকেল রিপোর্ট পাওয়া পর অভিযোগপত্র দাখিল করা হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ