গোদাগাড়ীতে মারামারির ঘটনার ১৩ দিন পরেও মামলা হয় নি

আপডেট: জুলাই ১২, ২০১৭, ১:২৯ পূর্বাহ্ণ

গোদাগাড়ী প্রতিনিধি


রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে মারামারির ঘটনার ১৩ দিন পরেও থানায় মামলা দায়ের করা হয় নি। ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ২৮ জুন উপজেলার ভাটোপাড়া বালিকা বিদ্যালয় মাঠে রেনেসাঁ ও নবরূপ সংঘের মধ্যে প্রীতি ফুটবল ম্যাচে এ মারামারির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ৫-৬ জন আহত হয়।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ২৮ জুন উপজেলার ভাটোপাড়া বালিকা বিদ্যালয় মাঠে রেনেসাঁ ও নবরূপ সংঘের মধ্যে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। খেলা চলাকালীন সময়ে ফাউলকে কেন্দ্রে করে রেনেসাঁ সংঘের খেলোয়ারদেরকে মারধর করে নবরূপ সংঘের সমর্থক ও খেলোয়াড়রা। এতে করে রেনেসাঁ সংঘের সাগর আলী, আনারুল ইসলাম, সমিনুর ইসলাম, আয়াতুল্লা মোনা ও জিয়া নামে কয়েকজন আহত হয়। আহতদেরকে গোদাগাড়ী ৩১ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাদের অবস্থার অবনতি ঘটলে ৩০ জুন রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। এই নিয়ে নবরূপ সংঘের সমর্থক আবদুুল্লাহ্ ওরফে পাভেলসহ কয়েকজনকে আসামি করে গোদাগাড়ী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে। রেনেসাঁ সংঘের সভাপতি রোকন সরকার অভিযোগ করেন, তাদের দেয়া এজাহারটি মামলা হিসেবে এখনো অন্তর্ভুক্ত করে নি পুলিশ।
এ প্রসঙ্গে গোদাগাড়ী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হিপজুর আলম মুন্সি বলেন, মারামারির ঘটনায় দুইপক্ষই তার কাছে অভিযোগ করেছে। কিন্তু দুইটি পক্ষই স্থানীয়ভাবে মিমাংসা করবে বলে তাকে জানায়। এখন পর্যন্ত এই নিয়ে কেউ অভিযোগ করে নি। তবে অভিযোগ পাওয়া গেলে মামলা নেয়া হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ