গোদাগাড়ীর চার পুলিশ কর্মকর্তাকে একযোগে বদলি।। বাড়িতে ইয়াবা রেখে টাকা আদায়ের অভিযোগ

আপডেট: এপ্রিল ২৮, ২০১৭, ১২:২১ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


বাড়িতে ইয়াবা রেখে টাকা আদায়ের অভিযোগে রাজশাহী গোদাগাড়ী থানার সেকেন্ড অফিসারসহ চার পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে শাস্তিমুলক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। চারজনের মধ্যে একজনকে পুলিশ লাইনে ক্লোজড করা হয়েছে। অপর তিনজনকে ভিন্ন ভিন্ন ফাঁড়িতে বদলি করা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গোদাগাড়ী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হিপজুর আলম মুন্সি।
সংশ্লিষ্ট সূত্রের মতে, গত ২০ এপ্রিল রাতে উপজেলার প্রেমতলী গ্রামে জনৈক রবিউল ইসলাম ফিটুর বাড়িতে ঘরের মধ্যে ইয়াবা ফেলে আড়াই লাখ টাকা দাবি করেন এসআই করিম, এসআই লতিফ, এসআই রুবেল ও এএসআই রাজিব। এ নিয়ে ঘটনাটি জেলা পুলিশের কর্মকর্তাদের গোচুরিভুত হলে গতকাল বৃহস্পতিবার চার পুলিশ কর্মকর্তার মধ্যে এসআই করিমকে যুগিপাড়া পুলিশ ফাঁড়ি, এসআই লতিফকে মুন্ডুমালা ও এসআই রুবেলকে অন্যত্র বদলি করা হয়েছে। এছাড়া এএসআই রাজিবকে পুলিশ লাইনে ক্লোজড করা হয়।
ওসি হিপজুর আলম মুন্সি জানান, প্রশাসনিক কারণেই জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ চারজনকে থানা থেকে বদলির আদেশ দিয়েছেন। যে অভিযানটি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে, সংশ্লিষ্টরা তাকে না জানিয়ে বের হয়েছিলেন বলে তিনি জানান।
প্রসঙ্গত, গত ২৭ এপ্রিল দৈনিক সোনার দেশ এর প্রথম পাতায় ‘ওরা রাত নামলেই নেমে পড়েন আদায় মিশনে’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। সংবাদটি সংশ্লিষ্ট মহলে ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি করে।