গোপালগঞ্জে মোহামেডানকে হারালো আবাহনী

আপডেট: ডিসেম্বর ৭, ২০১৬, ১২:০২ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আবাহনী লিমিটেডের বিপক্ষে প্রতিশোধ নিতে পারে নি মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। মৌসুমের শুরু থেকেই নিজেদের খুঁজে ফেরা দলটিকে প্রিমিয়ার লিগের ফিরতি লেগেও হারিয়েছে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে থাকা জর্জ কোটানের দল।
গোপালগঞ্জের শেখ ফজলুল হক মনি স্টেডিয়ামে ম্যাচটি ২-১ গোলে জিতেছে আবাহনী। গোলশূন্য প্রথমার্ধের পর লি টাক ও সানডে চিজোবার গোলে আবাহনী এগিয়ে যাওয়ার পর একেবারে শেষ মিনিটে মোহামেডানের ব্যবধান কমানো গোলটি করে পাওলি লন্ড্রি। এই জয়ের পর লিগের শীর্ষে থাকা আবাহনীর পয়েন্ট হলো ৪২। মোহামেডানের পয়েন্ট ১৭।
গোপালগঞ্জের শেখ ফজলুল হক মনি স্টেডিয়ামে গতকাল মঙ্গলবার ঘরোয়া ফুটবলের দুই ঐতিহ্যবাহী দলের প্রথমার্ধের খেলা ছিল একপেশে। আক্রমণে ছিল আবাহনী। রক্ষণে বেশি ব্যস্ত ছিল মোহামেডান। তবে ফরোয়ার্ডদের ব্যর্থতায় গোলের দেখা পায় নি জর্জ কোটানের দল।
গ্যালারিতে আসা আবাহনীর সমর্থকরা দ্বিতীয় মিনিটেই গোলের আনন্দে ভাসতে পারত। ডান দিক থেকে আক্রমণে ঢোকা জুয়েল রানার কাট ব্যাকে ইমন বাবুর প্লেসিং শট ঠিকানা খুঁজে পায়নি।
তিন মিনিট পর আরেকটি সুযোগ হাতছাড়া হয় প্রিমিয়ার লিগের সর্বোচ্চ চারবারের চ্যাম্পিয়ন আবাহনীর। এবার লি টাকের বাড়ানো বল ধরে আক্রমণে যাওয়া জুয়েলের ক্রসে সানডে চিজোবা ব্যাক হিল করতে গিয়ে ব্যর্থ হন।
২২তম মিনিটে বল নিয়ে ডি বক্সের মধ্যে ঢুকে পড়ার আগ মুহূর্তে লিগের সর্বোচ্চ ১৮ গোল করা আবাহনীর সানডে চিজোবাকে ফাউল করেন ইউসুফ আলি খান। লি টাকের ফ্রি-কিক গোলরক্ষক মোহাম্মদ নেহালকে কোনো পরীক্ষাই নিতে পারে নি।
৩৫তম মিনিটে দ্রুত আক্রমণে গেলেও সুযোগ নষ্ট করেন সানডে। আবাহনীর এই নাইজেরিয়ার ফরোয়ার্ডের কোনাকুনি শট পোস্টের ওপর দিয়ে উড়ে গেলে গোলশূন্যভাবে শেষ হয় প্রথমার্ধের খেলা। সতীর্থদের সঙ্গে নিয়ে পওমি লন্ড্রি প্রথমার্ধে মোহামেডানের রক্ষণ ভালোভাবে সামলে রাখেন। কিছুটা গুছিয়ে উঠলেও এ অর্ধে বলার মতো কোনো আক্রমণে যেতে পারেনি চলতি লিগে নিজেদের ছায়া হয়ে থাকা দলটি। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে পেনাল্টি থেকে আবাহনীকে এগিয়ে নেন লি টাক। জুয়েলকে আটকাতে গোলরক্ষক নেহাল তাকে জাপটে ধরে রাখেন! হলুদ কার্ড দেখা নেহাল বলের লাইনে ঝাঁপিয়ে পড়লেও স্পট কিকে লি টাকের শট আটকাতে পারেন নি। ইংল্যান্ডের এই মিডফিল্ডারের লিগ গোল হলো ১০টি। একটু পর মোহামেডানের অধিনায়ক ইসমাইল বাঙ্গুরার শট মোহামেডান সমর্থকদের হতাশ করে দূরের পোস্ট দিয়ে বেরিয়ে যায়। ৭৯তম মিনিটে ওয়াহেদের পাস ধরে ডান দিক থেকে দারুণ কোনাকুনি শটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন চিজোবা। এবারের লিগে নাইজেরিয়ার এই স্ট্রাইকারের এটি সর্বোচ্চ ১৯তম গোল। যোগ করা সময়ের শেষ মিনিটে খুব কাছ থেকে মোহামেডানের সান্ত¡নাসূচক গোলটি করেন লন্ড্রি। হেমন্ত ভিনসেন্ট বিশ্বাস, সানডে চিজোবা ও লি টাকের গোলে প্রথম পর্বে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী মোহামেডানকে ৩-০ ব্যবধানে হারিয়েছিল আবাহনী।-বিডিনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ