গ্যাস লিক: দিল্লিতে ১৫০ শিক্ষার্থীকে হাসপাতালে ভর্তি

আপডেট: মে ৭, ২০১৭, ১২:০৫ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


ভারতের রাজধানী দিল্লিতে একটি সরকারি স্কুলের কাছে একটি কন্টেইনার থেকে গ্যাস লিকের পর স্কুলটির ১৫০ জন শিক্ষার্থীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
সোমবার দক্ষিণ দিল্লির তুঘলকাবাদ এলাকার রানি ঝাঁসি সর্বদয়া কন্যা বিদ্যালয়ের পাশের এক কন্টেইনার ডেপোতে গ্যাস লিকের ওই ঘটনা ঘটে, জানিয়েছে এনডিটিভি।
ঘটনার পর রেলওয়ে কলোনিতে অবস্থিত স্কুলটির সব শিক্ষার্থীকে সরিয়ে নেয়া হয়।
গ্যাস ছড়িয়ে পড়া রোধ করতে ঘটনাস্থলে ভারতের ন্যাশনাল ডিজস্টার রেসপন্স ফোর্সের (এনডিআরএফ) কর্মকর্তারা উপস্থিত হয়েছেন। লিক করা গ্যাসটি ক্লোরোমিথাইল প্যারিডিন নামের একটি রাসায়নিক এবং এটি কীটনাশক তৈরিতে ব্যবহৃত হয়।
বার্তা সংস্থা এএনআইকে স্কুলটির ভাইস প্রিন্সিপাল বলেছেন, “গ্যাস লিকের পর কিছু শিক্ষার্থী চোখ ও ঠোঁট জ্বালাপোড়া করছে বলে অভিযোগ করে।”
গ্যাস লিকের সময় স্কুলটিতে ক্লাশ চলছিল এবং অনেক শিক্ষার্থী শ্বাস নিতে কষ্ট হচ্ছে বলে অভিযোগ করে।
এরপর শিক্ষার্থীদের নিকটবর্তী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। অনেক উদ্বিগ্ন অভিভাবক তাদের শিশুদের কাঁধে করে নিজেরাই হাসপাতালে নিয়ে যান, এমনটি তাদের হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেয়ার পরও ফের নিয়ে আসেন তারা।
সকাল ৭টা ৩৫ মিনিটে দিল্লি দমকল গ্যাস লিকের অভিযোগ পায়। দমকল বাহিনী জানিয়েছে, গ্যাস লিকের উৎস চিহ্নিত করার আগেই ঘটনাস্থলে তাদের সাতটি টিম পাঠানো হয়।
দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রী মনিষ সিসোদিয়া জানিয়েছেন, তিনি ফোনে বেশ হাসপাতালে ভর্তি বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থীর সঙ্গে কথা বলেছেন এবং পরে হাসপাতালে তাদের দেখতে যাবেন। শিক্ষার্থীদের দেখতে ইতোমধ্যেই হাসপাতালে গিয়েছেন দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নর অনিল বাইজাল এবং বিজেপি নেতা ভিজেন্দর গুপ্ত।- বিডিনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ