গ্রামীণফোনের প্রবৃদ্ধি ৯.৬ শতাংশ

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২, ২০১৭, ১২:১১ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



গ্রামীণফোন লিমিটেড ২০১৬ সালে ১১ হাজার ৪৯০ কোটি টাকা রাজস্ব আয় করেছে যা আগের বছরের তুলনায় ৯ দশমিক ৬ শতাংশ বেশি। নতুন গ্রাহক এবং সেবা থেকে অর্জিত রাজস্ব (আন্ত:সংযোগ আয় ব্যতীত) বেড়েছে ১২ শতাংশ (আগের বছরের তুলনায়) সেই সঙ্গে ডাটা রাজস্বের প্রবৃদ্ধিও অব্যাহত ছিল।
ডাটা থেকে অর্জিত রাজস্ব বেড়েছে ৬৯ দশমিক ৭ শতাংশ, ডাটা গ্রাহক ৫৬ দশমিক ১ শতাংশ ব্যবহারের পরিমাণ বেড়েছে ১৬৭ দশমিক ৯ শতাংশ। ব্যবহৃত মিনিটের পরিমাণ বাড়ার ফলে ভয়েস থেকে অর্জিত রাজস্ব বেড়েছে ৫ দশমিক ১ শতাংশ। চতুর্থ প্রান্তিকে নতুন গ্রাহক ও ট্রাফিক রাজস্ব (ইন্টারকানেকশন বাদে) ২০১৫ এর একই সময়ের তুলনায় ১২ দশমিক ২শতাংশ বেড়েছে। মঙ্গলবার রাজধানীর ওয়েস্টিন হোটেলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়।
গ্রামীণফোন ৫ কোটি ৮০ লক্ষ সক্রিয় গ্রাহক নিয়ে বছরটি শেষ করেছে, যেখানে প্রবৃদ্ধির হার ছিল ২ দশমিক ২ শতাংশ। গতবছর গ্রামীণফোনে যুক্ত হয়েছে ৮৮ লক্ষ ডাটা গ্রাহক। ফলে মোট গ্রাহকের ৪২ দশমিক ৩ শতাংশ ইন্টারনেট সেবা ব্যবহার করছে।
গ্রামীণফোনের সিইও পেটার ফারবার্গ বলেন, ২০১৬ সালে ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে গ্রামীণফোনের জন্য একটি সার্বিক সাফল্যের বছর। ডাটা রাজস্বের অব্যাহত প্রবৃদ্ধির পাশাপাশি ভয়েস খাতেও প্রবৃদ্ধি হয়েছে। এই বছর আমরা সাফল্যের সঙ্গে বায়োমেট্রিক যাচাই প্রক্রিয়া ও ৯০ শতাংশ সাইটে থ্রি-জি পৌঁছে দিতে পেরেছি।
তিনি আরো বলেন, ভবিষ্যতে আমরা এক বছর আগে স্থির করা প্রমাণিত কৌশলগত অগ্রাধিকার নিয়ে কাজ অব্যাহত রাখবো এবং সম্মানিত শেয়ারহোল্ডারের জন্য মূল্য সংযোজন করবো।
গ্রামীণফোনের সিএফও দিলীপ পাল বলেন, গ্রামীণফোনের দৃঢ় টপ লাইন এবং পরিচলন দক্ষতার উদ্যোগগুলোর কারণে ১৪ দশমিক ৩ শতাংশ রাজস্ব প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ