‘গ্রামেও ইলেক্ট্রনিক পণ্যের ব্যবহার বেড়েছে’

আপডেট: ডিসেম্বর ৫, ২০১৬, ১২:০৪ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, দেশে বিদ্যুতের ব্যবহার বৃদ্ধি পাওয়ায় গ্রামীণ জনপদেও আধুনিক ইলেক্ট্রনিক তৈজসপত্রের ব্যবহার বেড়েছে।
শুক্রবার গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বসুন্ধরা কনভেনশন সিটিতে অনুষ্ঠিত ইন্টেরিয়র ডিজাইনবিষয়ক ‘হোমফেস্ট ২০১৬’-এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, দেশের চিত্র বদলে গেছে। এখন মানুষ আগের তুলনায় অনেক বেশি সচেতন। অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি এবং সরকারের গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপের কারণে মানুষের জীবন এখন অনেক বেশি সহজ। এজন্য মানুষ জীবনযাত্রার সৌন্দর্যের প্রতি মানুষ আকৃষ্ট হচ্ছে। বসতবাড়ির সৌন্দর্যবর্ধনেও মানুষ অনেক ব্যয় করছে। এই সৌখিনতা শুধু শহরে নয়, গ্রামেও পৌঁছে গেছে।
গণপূর্তমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার দায়িত্ব গ্রহণকালে দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতা ছিল সাড়ে তিন হাজার মেগাওয়াট। এখন তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে প্রায় ১৫ হাজার মেগাওয়াট। সরকার ২০২১ সালের মধ্যে ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দিতে ২০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যৎ উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে।
মন্ত্রী বলেন, সরকার সাধারণ মানুষের আবাসন সুবিধার জন্য এক লাখ ফ্ল্যাট নির্মাণ করছে। উত্তরা তৃতীয় পর্বে ২০ হাজার, পূর্বাচলে ৬০ হাজার এবং ঝিলমিলে প্রায় ২০ হাজার ফ্ল্যাট নির্মাণ করছে। এসব ফ্ল্যাটে আধুনিক সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করা হচ্ছে। রাজউকের এসব ফ্ল্যাট কেনার ক্ষেত্রে স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক ঋণ প্রদান করছে। ২৫ বছর মেয়াদি এ ঋণে সুদের হার সাড়ে আট ভাগ।
মন্ত্রী বসতবাড়ি সাজসজ্জায় সহজশর্তে ঋণ প্রদানে এগিয়ে আসার জন্য বিভিন্ন ব্যাংকের প্রতি আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন শিল্প মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. মোশাররফ হোসেন ভূইয়া। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উইন্ডমিলের সাব্বির রহমান তামিম। বক্তৃতা করেন বার্জার পেইন্টের নাভিদ সরোয়ার, ইস্টার্ন ব্যাংকের জুলকার নাইন, আকিজ সিরামিক্সের মোরশেদ আলম, ইস্কয়ার ইলেক্ট্রনিক্সের মঞ্জুরুল করীম প্রমুখ। রাইজিংবিডি