ঘণ্টায় ৬০০ কিলোমিটার গতির ম্যাগলেভ ট্রেন আনল চিন

আপডেট: জুলাই ২০, ২০২১, ৬:০৮ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক :


চিনের শ্যানডং প্রদেশের শিংদাও শহরে ঘণ্টায় ৬০০ কিলোমিটার গতি তোলার সক্ষমতা সম্পন্ন ম্যাগলেভ ট্রেন। ছবি: রয়টার্স

চিন ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৬০০ কিলোমিটার গতি তোলার সক্ষমতা সম্পন্ন একটি ম্যাগলেভ ট্রেন উন্মোচন করেছে।
বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, সর্বোচ্চ এই গতি ট্রেনটিকে বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুতগামী স্থলযানের স্বীকৃতি এনে দিতে পারে।
চিনের নিজস্ব প্রযুক্তিতে উপকূলীয় শহর শিংদাওয়ে ট্রেনটি তৈরি করা হয়েছে বলে দেশটির রাষ্ট্রায়ত্ত বার্তা সংস্থা জানিয়েছে।
বিদ্যুৎ-চৌম্বকীয় শক্তি ব্যবহার করে ম্যাগলেভ ট্রেন লাইনের ওপর ‘ভাসমান’ থাকে, রেলের সঙ্গে ট্রেনের কোনো সংযোগ থাকে না।
চিন প্রায় দুই দশক ধরে খ্বু সীমিত পর্যায়ে এই প্রযুক্তি ব্যবহার করে আসছে। সাংহাইয়ে বিমানবন্দর ও শহরের মধ্যে চলাচলের জন্য ছোট একটি ম্যাগলেভ লাইন চালু আছে।
চিনে এখনও আন্তঃনগর ও আন্তঃপ্রদেশ পর্যায়ে কোনো ম্যাগলেভ লাইন নেই। তবে সাংহাই ও চেংদুসহ কিছু শহর এ ধরনের লাইন চালু করার বিষয়ে গবেষণা শুরু করেছে।
ঘণ্টায় ৬০০ কিলোমিটার গতিতে চললে এই ট্রেনটির চিনের রাজধানী বেইজিং থেকে ১০০০ কিলোমিটারেরও বেশি দূরের বাণিজ্য নগরী সাংহাই যেতে মাত্র আড়াই ঘণ্টা লাগবে। একই ভ্রমণে বিমানে লাগবে তিন ঘণ্টা আর হাইস্পিড ট্রেনে সাড়ে পাঁচ ঘণ্টা।
উচ্চ ব্যয় ও বিরাজমান রেল অবকাঠামোর সঙ্গে অসঙ্গতি সত্ত্বেও জাপান, জার্মানিসহ কয়েকটি দেশ ম্যাগলেভ নেটওয়ার্ক গড়ে তুলতে চাইছে।
তথ্যসূত্র বিডিনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ