ঘরোয়া পরিবেশে টিএসসিসি চালু হওয়ায় শিক্ষার্থীদের ক্ষোভ

আপডেট: ডিসেম্বর ১৮, ২০১৬, ১২:০৭ পূর্বাহ্ণ

রাবি প্রতিবেদক :



উদ্ভোধনের এক বছর পর গত শুক্রবার বিজয় দিবসে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপলক্ষে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শহীদ সুখরঞ্জন সমাদ্দার ছাত্র-শিক্ষক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র (টিএসসিসি)-র কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে চালু করা হয়েছে। তবে এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো সাধারণ শিক্ষার্থীদেরকে প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি। একান্ত ঘরোয়া পরিবেশে চালু হওয়াতে সকল শিক্ষার্থীরা নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক জোট একাত্ত্বতা প্রকাশ করেছেন। গতকাল শনিবার সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান তারা।
সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বর্তমান প্রশাসন বিজয় দিবস উপলক্ষে খুব তড়িঘড়ি করে একটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে যেখানে সাধারণ শিক্ষার্থীদের কোনো রকম অনুমতি ছিল না। সাধারন ছাত্র এবং সাংস্কৃতিক কর্মীদের বাদ দিয়ে কি করে ছাত্র-শিক্ষক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের কর্মকান্ড পরিচালিত হতে পারে। তা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক জোটের বোধগম্য নয়।
সাংস্কৃতিক জোট আরো জানায়, রাবির কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক জোটভুক্ত সকল সংগঠন তাদের দীর্ঘ দিনের দাবি-দাওয়া না মানায় তারা এই অনুষ্ঠান বর্জন করে।
এদিকে ঘরোয়া পরিবেশের মাধ্যমে টিএসসিসি’র চালু হওয়াতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অনেক শিক্ষার্থীরা। অনেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিভিন্ন ধরনের মন্তব্য করেছেন। তাদের মন্তব্যগুলো ছিল এরকম, কেন বিশ্ববিদ্যালয়ের এত সংস্কৃতিমনা ছাত্র-ছাত্রী থাকার পরও বাইরে থেকে সাংস্কৃতিক কর্মী নিয়ে এসে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করা হলো। যেখানের উল্লেখ আছে ছাত্র-শিক্ষক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র সেখানে কেন ছাত্রদের প্রবেশ করা নিষেধ।
প্রসঙ্গত, গত বছরের ২০ অক্টোবর টিএসসিসির উদ্বোধন করেন সংস্কৃতি মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। উদ্বোধনের দীর্ঘ এক বছর পর গত শুক্রবার ১৬ ডিসেম্বর এটি চালু করা হয়।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ