চন্দ্রবাবুর সঙ্গে হঠাৎ সাক্ষাতে স্ট্যালিন, দিল্লি দরবারের জল গড়াবে কোনদিকে?

আপডেট: জুন ৬, ২০২৪, ২:৫৪ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক:


দিল্লির দরবার দখলের লড়াইয়ে সাসপেন্স বাড়ছে। প্রথমে নীতীশ কুমারের সঙ্গে একই বিমানে দিল্লি যাত্রা তেজস্বী যাদবের। এবার দিল্লি বিমানবন্দরে চন্দ্রবাবু নায়ডুর সঙ্গে হঠাৎ সাক্ষাৎ এমকে স্ট্যালিনের। বেশ কিছুক্ষণ আলোচনা হয়েছে দুজনের।

সূত্রের দাবি, বুধবার (৫ জুন) রাতে এনডিএর বৈঠক দিল্লি বিমানবন্দরে হঠাৎ দেখা হয়ে যায় চন্দ্রবাবু নায়ডু এবং এমকে স্ট্যালিনের। বৃহস্পতিবার (৬ জুন) টুইটে নিজেই সেই সাক্ষাতের কথা জানিয়েছেন স্ট্যালিন। কিন্তু কী আলোচনা হয়েছে, সেটা স্পষ্ট নয়।

স্ট্যালিন অবশ্য এক্স হ্যান্ডেলে জানিয়েছেন, অন্ধ্রের কুরসি দখলের জন্য চন্দ্রবাবুকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তিনি। কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে দক্ষিণের রাজ্যগুলির দাবিদাওয়া নিয়ে সরব হওয়ার পরামর্শও দিয়েছেন।

এনডিএ’র অংশ হিসাবে কেন্দ্রের সরকারেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবেন নায়ডু। অন্তত বুধবার এনডিএর বৈঠকে যোগ দিয়ে মোদিকে আশ্বস্ত করে এসেছেন টিডিপি (ঞউচ) সুপ্রিমো। কিন্তু এনডিএ-র বৈঠকের ঠিক পরই বুধবার রাতে স্ট্যালিন-চন্দ্রবাবু সাক্ষাৎ নতুন করে সাসপেন্স বাড়াচ্ছে।

এই মুহূর্তে বিজেপির সঙ্গে দর কষাকষি চালাচ্ছে চন্দ্রবাবুর টিডিপি। সূত্রের দাবি, ১৬ সাংসদের দল চন্দ্রবাবু বিজেপির কাছে ৮-১০টি মন্ত্রক, অমরাবতীকে রাজধানী করার জন্য বিশেষ প্যাকেজ এবং অন্ধ্রের জন্য বিশেষ মর্যাদা দাবি করেছেন।

বিজেপির পক্ষে সব দাবি মানা কতটা সম্ভব তা নিয়ে সংশয় আছে। এরই মধ্যে স্ট্যালিনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে নায়ডু কি বিজেপির উপর চাপ বাড়ানোর কৌশল নিলেন? উত্তর খুঁজছে গেরুয়া শিবিরই।
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ