চাঁদাবাজির মামলার জের, জামিনে বেরিয়ে শিক্ষা কর্মকর্তাকে হাতুড়িপেটা

আপডেট: জুন ৪, ২০২২, ২:৩৯ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক :


নোয়াখালীতে চাঁদাবাজির মামলায় কারাগার থেকে জামিনে বেরিয়ে মামলার বাদী সদর উপজেলা প্রাথমিক সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা আবদুর রবকে প্রকাশ্যে হাতুড়িপেটা করেছে আসামি। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে।

শুক্রবার দুপুরে জেলা শহরের রশিদ কলোনি এলাকায় আবদুর রব হামলার শিকার হন বলে সাংবাদিকদের জানান।
৪৭ বছর বয়সী এ সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়। বর্তমানে তিনি বাসায় থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

এ ঘটনায় শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে আবদুর রব বাদী হয়ে মামলা করেন বলে সুধারাম থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মিজানুর রহমান জানান।
মামলায় রশিদ কলোনি এলাকায় আবুল খায়েরের ছেলে ফজলে এলাহী এলমান (৩০) ও সুলতান আহমদের ছেলে বাবুসহ (২৭) তিনজনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলায় বলা হয়, সদর উপজেলা প্রাথমিক সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা আবদুর রব জানুয়ারি মাসে রশিদ কলোনি এলাকায় বাড়ি নির্মাণ কাজ শুরু করেন। ওই সময় ফজলে এলাহী ও বাবু তার কাছে চাঁদা দাবি করে। চাঁদা না পেয়ে কিছু নির্মাণসামগ্রী চুরি করে নিয়ে যায় তারা।

এ ঘটনায় আবদুর রব ২২ ফেব্রæয়ারি সুধারাম মডেল থানায় চাঁদাবাজি ও চুরির মামলা করেন তিনি। পরে ফজলে এলাহীকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠায় পুলিশ। স¤প্রতি সে জামিনে কারাগার থেকে বেরিয়ে আবদুর রবকে প্রাণনাশের হুমকি দিতে শুরু করে।

শুক্রবার আবদুর রব জুমার নামাজ শেষে ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে বাসায় ফিরছিলেন। এ সময় ওঁৎ পেতে থাকা ফজলে এলাহী ও বাবুসহ কয়েকজন যুবক তার পথ আটকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে জখম করে। এ সময় আবদুর রবের চিৎকারে লোকজন এগিয়ে গেলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।

পরিদর্শক মিজানুর বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। ঘটনার পরপরই আসামিরা গা ঢাকা দিয়েছে। তাদের ধরতে অভিযান চালছে।
তথ্যসূত্র: বিডিনিউজ