চাঁপাইনবাবগঞ্জে অনুষ্ঠিত হলো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ম্যারাথন

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২১, ৯:১৮ অপরাহ্ণ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি:


মুজিব বর্ষ উদযাপন উপলক্ষে দেশব্যাপী ১০ লাখ জনতার অংশগ্রহণে ডিজিটাল পদ্ধতিতে ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২১’অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে গতকাল শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯টায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শহরের ডা. আ. আ. ম মেসবাহুল হক (বাচ্চু ডাক্তার) স্টেডিয়ামে জেলা প্রশাসক মঞ্জুরুল হাফিজ এর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দিন আহম্মেদ শিমুল, সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য ফেরদৌসি ইসলাম জেসী, লিবিয়ায় বাংলাদেশের নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল এসএম শামীমুজ্জামান, ৯ বীর, বগুড়া সেনানিবাসের (মেকানাইজড) মেজর সাইদুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা রুহুল আমীন প্রমুখ। বক্তারা বলেন, সারা পৃথিবীতে বঙ্গবন্ধু ম্যারাথনই ২০২১ সালের সবচেয়ে বড় ক্রীড়া অনুষ্ঠান। ক্রীড়া ক্ষেত্রে এটি একটা এ জেলার জন্য মাইলফলক হয়ে থাকবে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে ও তার আদর্শকে বুকে ধারণ করে একটি ক্ষুধা এবং দারিদ্র্যমুক্ত উন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণে এগিয়ে আসার জন্য দেশের তরুণ সমাজের প্রতি আহ্বান জানানো হয়। সদর দপ্তর ১১ পদাতিক ডিভিশন ও বগুড়া এরিয়ার তত্বাবধানে, এডহক ৯ বীর (মেকানাইজড) এর আয়োজনে এবং জেলা প্রশাসন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের সার্বিক সহযোগিতায় এ ম্যারাথনের আয়োজন করা হয়। পরে, অতিথিবৃন্দরা বেলুন উড়িয়ে এ ম্যারাথনের উদ্বোধন করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, পুলিশ সুপার এ এইচ এম আবদুর রকিব, নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. শঙ্কর কুমার কুন্ডু, সিভিল সার্জন ডা. জাহিদ নজরুল চৌধুরী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) এ কে এম তাজকির-উজ-জামান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) দেবেন্দ্রনাথ উরাও, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ নজরুল ইসলামসহ বিভিন্ন পর্যায়ের সরকারি-বেসরকারি কর্মকর্তা ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ। বাচ্চু ডাক্তার স্টেডিয়াম থেকে শুরু হওয়া প্রতিযোগিতাড দৌড়বিদরা জেলা শহরের প্রায় ৫ কিলোমিটার সড়ক ঘুরে জেলা পুরাতন স্টেডিয়ামে গিয়ে শেষ হয়। ম্যারাথন চলাকালে শহরের বিভিন্ন মোড় ও সড়কের পাশে উৎসবমূখর পরিবেশ সৃষ্টি হয়। এ ম্যারাথন দৌড়ে প্রায় ১০ হাজার বিভিন্ন শ্রেনীপেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেন। শেষে দৌড়ে নিবন্ধনকৃত অংশগ্রহণকারীদের মধ্য থেকে বিজয়ী ১’শ জনকে সম্মাননা হিসেবে ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট দেয়া হয়।