চাঁপাইনবাবগঞ্জে দিন দিন করোনা সংক্রমণ বাড়লেও স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষিত

আপডেট: July 12, 2020, 2:07 pm

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি :


দিন দিন চাঁপাইনবাবগঞ্জে করোনা সংক্রমণের প্রবণতার হার বৃদ্ধি পেলেও মানুষের মাঝে এখনো গড়ে উঠেনি সচেতনতা। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার সরকারি যে নির্দেশনা রয়েছে তা অনেকেই মানছে না। এখনো অনেক মানুষ মাস্ক না পড়ে চলাচল করছে, পাশাপাশি সামাজিক দূরত্ব বজায় না রাখার প্রবণতাও কমছে না। মাঝে মধ্যে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালালেও ঠেকানো যাচ্ছে না মাস্ক না পড়ার প্রবণতা। কী শহর, কী গ্রাম সবখানেই একই চিত্র। জেলা শহরের কাঁচাবাজার, নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্যের ও ওষুধের দোকান, অলিগলিতে কোথাও নিয়ম মানার বালাই নেই। সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত জেলা শহরের বিভিন্ন প্রায় সর্বত্রই একই চিত্র। এরপর আবার আগের অবস্থাতেই ফিরে যাচ্ছে পরিস্থিতি। জেলা শহরের বিভিন্ন এলাকার দোকানগুলোতে মানুষের সঙ্গে মানুষের সংস্পর্শে কেনাকাটা করছেন। অন্যদিকে, শহরের ও এর আশপাশের এলাকার বিভিন্ন চায়ের দোকান ও ছোট ছোট হোটেলে বসে মানুষ সামাজিক দূরত্ব বজায় না রেখে যেভাবে আড্ডাসহ খাচ্ছে। এছাড়া এসময় অনেক মানুষের মধ্যে মাস্ক না ব্যবহারের প্রবণতা দেখা গেছে। পাশাপাশি বর্তমান পরিস্থিতিতে সামাজিক দূরত্ব বজায় না রাখার অভ্যাসটি পরিবর্তন হচ্ছে না। তবে নাগরিক সচেতনতা তৈরি না হলে সংক্রমণের সংখ্যা আরো বাড়বে বলেই আশঙ্কা করছেন অনেকেই। এমনকি স্থানীয় হাট-বাজার সামাজিক দুরত্ব বজায় না রেখেই নিয়মিত চলাচল করছে। এ অবস্থায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে ঘরে আবদ্ধ থাকার সময় বাড়ানো এবং প্রশাসনকে আরো কঠোর অবস্থানে যাবার আহ্বান জানান বিভিন্ন মহল। এ ছাড়া জেলা শহরের বড় ইন্দারা মোড়ের বিভিন্ন ওষুধ বিক্রয়ের দোকানগুলোতে একই চিত্র। পাশাপাশি নাগরিকদের প্রয়োজনীয় কাজের জন্য বর্তমানে যে সময় নির্ধারণ করে দেয়া রয়েছে তা আরো সংক্ষিপ্ত করা জরুরি। অন্যথায় করোনা ভাইরাসের ভয়াবহ সংক্রমণ থেকে মানুষ রেহায় পাবে না। এব্যাপারে প্রশাসনসহ আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার নজরদারি বাড়ানো প্রয়োজন বলে মনে করছেন অনেকেই।