চাঁপাইনবাবগঞ্জে প্রশাসনের তৎপরতা অব্যাহত

আপডেট: এপ্রিল ৪, ২০২০, ১০:২৩ অপরাহ্ণ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি :


চাঁপাইনবাবগঞ্জে প্রশাসনের তৎপরতায় রাস্তা-ঘাট ছিল জনশূন্য- সোনার দেশ

করোনা সংক্রমণ রোধে প্রশাসনের দিন-রাত তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে। যেন প্রয়োজন ছাড়া বাড়ি থেকে কোনো মানুষ বের না হন। সন্ধ্যা হলেই সুযোগ বুঝে মানুষ যখন শহরের বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে আড্ডা ও দোকানপাট আংশিক খোলা রাখার চেষ্টা করছেন, ঠিক তখনই জেলা প্রশাসনের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটরা অভিযান চালিয়ে তাদেরকে নিবৃত্ত করছেন। শুক্রবার (৩ এপ্রিল) সন্ধ্যা থেকে রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত জেলা শহরের হুজরাপুর, জলযোগ মোড়, পুরাতনবাজার এলাকায় অপ্রয়োজনে বের হওয়া মানুষকে ঘরমুখো করতে তৎপরতা চালিয়েছেন। যেন এ পরিস্থিতিতে মানুষ বের না হন। এছাড়া মুদিদোকানগুলোতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ক্রেতাদের পণ্য ক্রয় করতে নির্দেশনা দিচ্ছেন। যারা নির্দেশনা অমান্য করছেন তাদেরকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জরিমানা আদায় করা হচ্ছে। এদিকে, পুলিশবাহিনীর সদস্যরা শহরের বিশ্বরোড মোড়, বাতেন খাঁ মোড়, হাসাপাতাল রোড মোড়, ফায়ার সার্ভিস মোড়, শান্তিমোড়, নয়াগোলা মোড়, শেখ হাসিনা সেতু এলাকা, বীর শ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সেতু টোল ঘর, বারঘরিয়া, নিমতলা মোড়, সেন্টু মার্কেট মোড়, বড় ইন্দারা এলাকাসহ বিভিন্ন অলিগলিতে অহেতুক মানুষ চলাফেরা করার সময় তাদের আটক করে শাস্তিমুলক ব্যবস্থা নেন।
এদিকে, শনিবার ( ৪ এপিল) সকাল থেকে আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর সদস্যরা শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে অবস্থান নিয়ে অভিযান অব্যাহত রেখেছে। এছাড়া, মানুষকে সচেতন করতে মাইকিংয়ের মাধ্যমে প্রচারণা চালানো হচ্ছে। অপরদিকে, অটোরিক্সায় ১ জন ও ইজিবাইকে ২ জন যাত্রী নিয়ে সীমিত আকারে চলাচলের নির্দেশনা রয়েছে। কিন্ত হাসপাতাল, ক্লিনিক বা চিকিৎসকের কাছে যাওয়াসহ অতি প্রয়োজনে যারা ঘরের বাইরে হচ্ছেন তারা রিক্সা বা অটোরিক্সা না পেয়ে বাড়তি বিড়ম্বনায় পড়ছেন। অপরদিকে, সমাগম এড়াতে শনিবার বেলা ১২ টার পর থেকে নিত্যপণ্যের দোকানসহ কাঁচাবাজার বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. জিয়াউর রহমান জানান, সরকারি নির্দেশনা রয়েছে উদ্ভুত পরিস্থিতিতে অপ্রয়োজনে মানুষ যেন বাড়ির বাইরে না হওয়া। যারা এর ব্যত্যয় ঘটাচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুযায়ী শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। জেলা শহরের ১০ টি পয়েন্টে পুলিশের চেকপোস্টের মাধ্যমে বিশেষ অভিযান চলছে।
জেলা প্রশাসক এজেডএম নূরুল হক বলেন, জেলা প্রশাসনসহ পুলিশ প্রশাসনের প্রতিটি কর্মকর্তা ও সদস্যরা কঠোর অবস্থানে থেকে জনস্বার্থে এ অভিযান চালানো হচ্ছে। নিয়ম ভঙ্গ করার প্রবণতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে, তাদের বিরুদ্ধে আইনানুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। সেক্ষেত্রে মাইকিংয়ের মাধ্যমে প্রচারণা চালানো হচ্ছে। সরকারি নিদের্শনা না মেনে কোনো কারণ ব্যতিত বাড়ি থেকে বের হলে তাদের প্রতি নজরদারি অব্যাহত থাকবে।
অন্যদিকে, চাঁপাইনবাবগঞ্জে হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে ১১৮ জন। মেয়াদ শেষ হওয়ায় শনিবার আরো ৩০ জনকে কোয়ারেন্টাইন থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ