চাঁপাইনবাবগঞ্জে বিএনপিকে প্রতিহিত করতে আ.লীগের মতবিনিময়

আপডেট: নভেম্বর ২৬, ২০২২, ১১:০৫ অপরাহ্ণ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি :


আগামী ৩ ডিসেম্বর রাজশাহী ও ১০ ডিসেম্বর ঢাকায় বিএনপির সমাবেশকে ঘিরে বিএনপি কোন ধরনের অরাজকতা সৃষ্টি ও জনগণের ক্ষতি সাধণ করলে তাদের প্রতিহত করতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার ১৪ টি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও পৌর আওয়ামী লীগের ১৫ টি সভাপতি ও সম্পাদকদের সাথে মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

শনিবার (২৬ নভেম্বর) দুুপুর সাড়ে ১২টায় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক এমপি মোঃ আব্দুল ওদুদ এর আয়োজনে দক্ষিণ শহর বিনোদন পার্কে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও দেবীনগর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ হাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি’র বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক এমপি আব্দুল ওদুদ। সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মোঃ রফিকুল ইসলামের সঞ্চালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সদর উপজেলা আ.লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ আতিকুল ইসলাম, ১ নং ওয়ার্ড পৌর আ.লীগের সভাপতি শরিফুল ইসলাম, ৪নং ওয়ার্ডের সভাপতি শফিকুল ইসলাম, ঝিলিম ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম লুৎফল হাসান, মহারাজপুর ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ সাইদুর রহমান, বারঘরিয়া ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ হারুন-অর-রশিদ, সুন্দরপুর ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি আশরাফ উদ্দিন মাষ্টার, বালিয়াডাঙ্গা ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক রাজিব আহমেদ প্রমুখ। এসময় জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওদুদ বলেন, আগামী ৩ ও ১০ ডিসেম্বর বিএনপি সমাবেশ করতে যাচ্ছে। কোন বাঁধা দিতে চাই না। কিন্তু এ সমাবেশকে ঘিরে কোন ধ্বংস লীলা চালায় তাহলে দলের প্রতিটি নেতাকর্মীকে সজাগ থাকার পাশাপাশি তাদের প্রতিহত করার আহ্বান জানান তিনি। বিএনপি-জামায়াতের মধ্যে ঘাপটি মেরে থাকা অনেক জঙ্গী যেন দেশের অস্থিরতা বিরাজ করে ঝটিকা আক্রমণ করতে না পারে, সেদিকে সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হবে। বিএনপি দেশকে ভালবাসে না, তারা শুধূ সম্পদকে ভালবাসে, এটিই তাদের বৈশিষ্ট। তিনি দলের নেতকার্মীদের উদ্যোশ্যে বলেন, যারা আওয়ামী লীগকে ভালবাসেন সেসব ত্যাগী নেতাকর্মীরা কখনই দলের ভাবমূর্তি নষ্ট করার চেষ্টা করেন না, তারা দলকে আগলে রাখেন। অনেকেই দলের পদ-পদবীকে ব্যবহার করে দলকে ক্ষতিগ্রস্থ করে বিশৃংখলার সৃস্টি করছেন। আওয়ামী লীগ সরকার যদি ক্ষমতায় না থাকে এসব পদ-পদবীদের খুঁজে পাওয়া যাবে না, তারা দল ছেড়ে পালিয়ে যাবে। যারা দলের জন্য জীবন দেয়, তারাই বিপদে পড়বে। সরকারি দলে বেশী সমস্যা থাকে, যারা এসব সমস্যা সৃষ্টি করছে এদের অতীতে পাওয়া যায়নি ও ভবিষ্যতেও এদের পাওয়া যাবে না। আমাদের শত্রু আমরাই। দলের নেত্রীর অসম্মান ও দলের ভাবমূর্তি নষ্ট না করতে তাদের প্রতি আহ্বান জানান। এছাড়া, বিএনপি-জামায়াতকে উৎসাহিত করতে দলের কতিপয় নেতা সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলেন। সংগঠন যেন ক্ষতিগ্রস্থ না হয় নিজ নিজ দায়িত্ব থেকে দলকে আরো সুসংগঠিত করতে হবে।