চাঁপাইনবাবগঞ্জে মাদকের ছড়াছড়ি বাড়ছে ছিনতাই ও ডাকাতি

আপডেট: আগস্ট ৩১, ২০২১, ১০:১৭ অপরাহ্ণ

সাজেদুল হক সাজু, চাঁপাইনবাবগঞ্জ:


সীমান্তবর্তী জেলা চাঁপাইনবাবগঞ্জে মাদক, চুরি, ছিন্তাই ও ডাকাতির ঘটনা বাড়ছে। মাদকের ছড়াছড়িতে যুব সমাজ বিপদগামী হয়ে চুরি ছিনতায়ের সাথে জড়িয়ে পড়ছে। আইন শৃংখলা বাহিনী কিছু সংখ্যক মাদকসেবী চোর ডাকাত ধরলেও আইনের বেড়াজাল থেকে বেরিয়েই আবারও আগের পেশাই ফিরে যাচেছ।
জানা গেছে, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ভোলাহাট উপজেলা থেকে ঢাকাগামী নাইট কোচ চাঁপাই ট্রাভেলস, মিন্টু এন্টারপ্রাইজ ও জমজম এন্টারপ্রাইজসহ প্রায় ছোট বড় ৩০ টি গাড়ি গত সোমবার রাত সাড়ে আট টায় বিলভাথিয়ারসোনাজল নামক স্থানে থামিয়ে ১৫/২০ জনের ১টি সংঘবদ্ধ ডাকাত দল দেশি অস্ত্রসহ ঝাঁপিয়ে পড়ে যাত্রী, গাড়ীর হেল্পার, ড্রাইভারকে বেধড়ক মারধর করে যাত্রীদের কাছ থেকে টাকা পয়সা মোবাইল ছিনতাই করে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে র‌্যাপিড একশান বাটালিয়ন র‌্যাব ও ডিবি পুলিশের দল ৫ জন ডাকাতকে গ্রেফতার করে।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ মিনিবাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান শামিম জানান, আমরা পুলিশ প্রশাসনকে আগেই অবহিত করেছিলাম। পুলিশ ঠিকমত কাজ করলে এ রকম ডাকাতি ঘটত না।
শিবগঞ্জ পৌর এলাকার এনজিওকর্মী বেনজীর আলী জানান, সম্প্রতি পৌর এলাকায় কয়েকটি ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। এসব ঘটনার পেছনে শিবগঞ্জ পৌর এলাকা ও উজিরপুর এলাকার উঠতি মাদকাসক্ত যুবক চক্র জড়িত। পুলিশ এসব ঘটনায় আরিফ, শান্তসহ ৩ জনক আটক করেছে। অনেক ক্ষেত্রে এ সব ভুক্তভোগী থানা কর্তৃপক্ষকে অবহিত না করাই পুলিশ কোন পদক্ষেপ গ্রহন করতে পারে না। বহালাবাড়ীর সবজি ব্যবসায়ী ভুলু মন্ডল জানান, ছত্রাজিতপুর, কমলাকান্তপুর, নয়ালাভাঙ্গা গ্রামের সবজী ব্যবসায়ীরা খুব সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরে যাওয়ার পথে হরহামেসাই ঘোড়াষ্ট্যান্ড, মহারাজপুর, মেলার মোড় ঐ সব ছিনতাইকারির কবলে পড়ে। অন্যদিকে ঐ সব সবজি ব্যবসায়ী কানসাট ও শাহবাজপুর যাওয়ার পথে রসুলপুর, ভাঙ্গা ব্রিজ, পাইলিং মোড়, ধোপপুকুর, ধোবড়াবাজার এলাকায় মটরসাইকেল টহল পাটি ছিনতাই করে।
শিবগঞ্জ পৌরসভার সাবেক মেয়র কারিবুল হক রাজিন জানান, সোনামসজিদ স্থল বন্দর থেকে কানসাট পর্যন্ত, পিঠালীতলা থেকে ধাইনগর পর্যন্ত, চককৃত্তি থেকে চৌডালা পর্যন্ত রাত ৮ টার পর শুরু হয় ডাকাতি ও ছিনতাই এর উৎসব। তিনি মরদানা, ধাইনগর, চৌডালা, চাকলা, মান্নু মোড়, বড় গাচ্ছি, কর্নখালি মির্জাপুর, শাহবাজপুর, কয়লাবাড়ী, সালামপুর, সোনাপুর, পিরোজপুর, চাকপাড়া, কৃষ্ণচন্দ্রপুর এলাকায় ডাকাতের সন্ধানে চিরুনী অভিযানের দাবি করেন।
ভুক্তভোগীদের কেউ কেউ আইনের আশ্রয় নিয়ে শিবগঞ্জ থানা পুলিশের মাধ্যমে মোটর সাইকেল উদ্ধারও করেছে। শিবগঞ্জ থানা অফিসার ইন চার্জ ফরিদ হোসেন জানান, সোনামসজিদ রোডে ডাকাতির ঘটনায় ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বর্তমানে তাদের দ্রুত বিচার আইনে বিচার কার্যক্রম চলছে। এছাড়া খাসের হাট এলাকায় ছিনতাই হওয়া মোটর সাইকেল উদ্ধার করেছে পুলিশ। গোমস্তাপুর থানার অফিসার ইন চার্জ দিলীপ কুমার দাস জানান, চৌডালা এলাকায় ৮ জন ডাকাতকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শিবগঞ্জ পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের সাবেক কমিশনার খাইরুল আলম জেম জানান, মরদানা এলাকায় একটি সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আব্দুল, খোকার নেতৃত্বে গত ২০ শে জুলাই থেকে এখন পর্যন্ত ৩২ টি গরু, ৩৫ টি বাড়িতে লুটপাট এর ঘটনা ঘটায়। এসব ঘটনায় প্রতিবাদ করতে গেলে ভুক্তভোগীরাই ভোগান্তি শিকার হয় হয় বলে জানিয়েছে একাধীক ভুক্তভোগী।
শিবগঞ্জ উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া জানান, শিবগঞ্জ উপজেলার মাসিক মটিংয়ে বিভিন্ন ইউনিয়নের পরিষদের চেয়ারম্যানরা প্রকাশ্যে মাদক বিক্রি ও সেবনকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করার সিদ্ধান্ত করে। ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ র‌্যাব ৫ কোম্পানি কমান্ডর ফ্লাইট লেঃ মোঃ মারুফ জানান, চলতি মাসে ৮০ জন মাদকসেবী ও ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহবুব আলম খান জানান, ভোলাহাট উপজেলার ডাকাতির ঘটনায় ৫ জন ডাকাতকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ডাকাতদের অভয়ারণ্য এলাকায় অভিযান অব্যাহত রয়েছে।